প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

স্কুল ফাঁকি দিয়ে ভাটার কাজে শিশু

ডেস্ক রিপোর্ট : কেউ পারিবারিক অভাবের কারণে, কেউ বা নিজে উপার্জনের পন্থা হিসেবে কাজ করছে ইট ভাটায়। প্রতিদিন ২৫০ টাকা করে তাদের বেতন দিচ্ছে মালিক। পরিবারের সরলতার সুযোগ নিয়ে ইট-ভাটার সরদার স্কুল পড়ুয়া শিশুদের ইট ভাটায় শ্রমের জন্য পাঠাচ্ছে। এলাকার সুধীজন নজরদারি করলেও সবার চোখ ফাঁকি দিয়ে ইট-ভাটায় যাচ্ছে শিশু।

রাজাপুর উপজেলার গালুয়া ইউনিয়নের পশ্চিম পুটিয়াখালী গ্রামের রুস্তম আলী হাওলাদার’র ইট তৈরির কারখানা (অনুমোদনহীন পাঁজা) মেসার্স MTH ব্রিকসে গিয়ে দেখা যায় শিশু শ্রমিকের কাজ করছে লোকমান (১২) আ. শুক্কুর (১৩), সাব্বির হোসেন (১২), হৃদয় হোসেন (১৬), সবুজ (১৬), শাহীন (১৬), তারেক (১৭)। তারা সবাই স্কুলছাত্র। তাদের তদারকির জন্য রয়েছে আব্দুল বারেক নামের আরেক শ্রমিক।

একে একে কথা হয় সবার সাথেই। লোকমান জানায়, বাবা-মা সবাই আছে। একটি কওমি মাদ্রাসা থেকে পড়াশুনা করে পুটিয়াখালী আলিয়া মাদরাসায় ৫ম শ্রেণিতে ভর্তি হয়েছে। বাড়ি থেকে মাদরাসায় যেতে অনেক দূর। তাই এখানে কাজ করে সেই টাকা দিয়ে একটি বাইসাইকেল কিনবে। এরপর যে টাকা থাকবে তা দিয়ে কিছু খেলাধুলার সামগ্রী কিনবে আর মাহফিল বা অন্য কোন অনুষ্ঠানে গেলে নিজের ইচ্ছে মতো খরচ করবে। বাংলাদেশ নিউজ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত