প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সময়োপযোগী করে পুনর্গঠন করতে হবে কমনওয়েলথ: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

আশিস গুপ্ত ,নয়াদিল্লি: বাংলাদেশের ভাবনায় এমন একটি কমনওয়েলথের ছবি যা উন্নয়নের চালিকাশক্তি শক্তি হিসাবে কাজ করবে। সুশাসন,পরিকাঠামো, যোগাযোগ ব্যবস্থা, নারী সশক্তিকরণ’র মতো উন্নয়নের বহুমুখী ক্ষেত্রকে বিকশিত করতে নেতৃত্ব দেবে সেই কমনওয়েলথ।

বৃহস্পতিবার রাতে ‘একবিংশ শতাব্দীর জন্য নতুন ভাবনায় কমনওয়েলথ ‘শীর্ষক আলোচনায় অংশ নিয়ে একথা বলেছেন বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ এইচ মাহমুদ আলী। কমনওয়েলথ’র সদস্য দেশগুলির প্রধানদের ২৫তম বৈঠক যার পোশাকি নাম ,’সি এইচ ও জি এম ২০১৮’ অনুষ্ঠিত হবে আগামী এপ্রিল মাসে ইংল্যান্ডে। তারই প্রস্তুতির অংশ হিসাবে তিনদিনের ‘রাইসিনা ডায়লগ’ অনুষ্ঠিত হচ্ছে নয়াদিল্লিতে।

বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সেই অনুষ্ঠানে বলেন ,’গোটা বিশ্বের সমাজ জীবনে ব্যাপক পরিবর্তন হচ্ছে। পরিবর্তন হচ্ছে মানুষের চাহিদা ,আশা আকাঙ্খার। সেই পরিবর্তনের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে উন্নয়নের অগ্রাধিকার করতে হবে। সময়পোযোগী করে গড়ে তুলতে হবে ‘কমনওয়েলথ’র মতো সংগঠনকে।’তিনি বলেন, ছোট পরিসরে হলেও কমনওয়েলথ সচিবালয় পুনর্গঠনের যে উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে তাতে আমরা আনন্দিত।

বিদেশমন্ত্রী এই উদ্যোগের জন্য অভিনন্দন জানান কমনওয়েলথ’র সচিব প্রধান প্যাট্রিসিয়া স্কটল্যান্ড কে। মাহমুদ আলী বলেন, কমনওয়েলথ’র বর্তমান কাঠামো এবং দিকদর্শনের মৌলিক পরিবর্তন করতে হবে। সংস্থার বিভিন্ন শাখার পুনর্গঠন করে তার কাজ ও ভূমিকা ঢেলে সাজাতে হবে। এদিন বক্তৃতা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ভারতে বাংলাদেশ হাইকমিশনার সৈয়দ মুয়াজ্জেম আলী।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত