প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

কালোবাজারে নতুন শিক্ষাবর্ষের বই বিক্রি চলছেই, দেখার কেউ নেই

জুয়াইরিয়া ফৌজিয়া : প্রতি বছরের মতো এবছরেও নতুন শিক্ষাবর্ষের বই বিক্রি হচ্ছে কালোবাজারে। রাজধানীর বিভিন্ন বইয়ের বাজারে এটি এখন একটি স্বাভাবিক ঘটনায় পরিণত হয়েছে। তবে বিক্রেতারা জানান, ছাপাখানায় এইসব বইয়ের যোগান দেই। কিন্তু এই দাবি মানতে নারাজ মুদ্রণশিল্প সমিতি।

এদিকে জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড জানায়, কালোবাজারে বই বিক্রি বন্ধে তদারকির এখতিয়ার নেই মুদ্রণশিল্প সমিতির।

বই বিক্রির কথা ফুটপাথের বিক্রেতা প্রথমে অস্বীকার করলেও ক্রেতার খোঁজ পেয়ে বেশিক্ষণ সামলে রাখতে পারলেন না নিজেকে। পরে আড়াল থেকে তারা নিয়ে আসে বিনামূল্যের বই এবং দর কষাকষি করে প্রতিটি বই বিক্রি করে ৪০ টাকায়।

শুধু বাংলাবাজার নয়, এইসব বই কিনতে পাওয়া যাচ্ছে নীলক্ষেতসহ রাজধানীর একাধিক বইয়ের বাজারে। অথচ ছাপার পর যেটা চলে যাওয়ার কথা শিক্ষার্থীদের হাতে।

এ বিষয় নিয়ে এনসিটিবির চেয়ারম্যান জানান, এমন ঘটনার তদারকির এখতিয়ার নেই মুদ্রণশিল্প সমিতি।

মুদ্রণশিল্প সমিতির সভাপতি তোফায়েল খান বলেন, আমাদের যে প্রিন্টাররা বই ছাপিয়েছে তাদের ছাপার সাথে এই বইগুলোর কোনো মিল নেই।

প্রতিবছর বিনামূল্যে বই সরবরাহ করে সরকার। কারন বছর ঘুরতে না ঘুরতে বই ছিড়ে যায়, নষ্ট হয়ে যায় এবং মলিন হয়ে পড়ে বলে অভিভাবকরা এমন বই কিনতে বাজারে যান।

তাই বছর শেষে নষ্ট বইয়ের বদলে নতুন বই সরবরাহের কোন প্রক্রিয়া চালু করলে অভিভাবকরা হয়তো আর এভাবে বাজারে ছুটবেন বলে মনে করছেন শিক্ষাবিদদেরা।

সূত্র: চ্যানেল টোয়েন্টিফোর

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত