প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

‘জিয়াউর রহমান একজন বিপ্লবী নেতা ছিলেন ’

খন্দকার আলমগীর হোসাইন : জিয়াউর রহমান একজন বিপ্লবী নেতা ছিলেন। তিনি বাংলাদেশকে নিয়ে অনেক ভাবতেন। বাংলাদেশের মানুষের কথা চিন্তা করতেন। তাকে তৎকালীন ছাত্র-শিক্ষক, কৃষক-শ্রমিক আপামর সকল মানুষ ভালোবাসতো। জিয়াউর রহমান বলেছেন, আমরা বাঙালি, বাংলা আমাদের মাতৃভাষা, যখন আমরা স্বাধীনতার কথা চিন্তা করব, মুক্তিযুদ্ধের কথা চিন্তা করব, বাংলাদেশের সীমানার মানুষগুলোর কথা চিন্তা করব, সেদিন যারা বাংলাদেশের পক্ষে লড়াই করেছে তাদেরকে মনে করে গর্ববোধ করব যে আমরা সবাই বাংলাদেশি। জিয়াউর রহমানের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে তার স্মৃতিচারণ করে সাবেক রাষ্ট্রপতি বদরুদ্দোজা চৌধুরী আমাদের অর্থনীতিকে এসব কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, জিয়াউর রহমান গ্রামের হাজার হাজার মানুষ এবং ছাত্র-ছাত্রী ও শিক্ষকদের সঙ্গে নিয়ে কৃষিতে বিপ্লব ঘটিয়েছিলেন। তারপর তিনি গণশিক্ষায় বিপ্লব ঘটালেন যাতে বাংলাদেশের সাধারণ মানুষ প্রাথমিক অক্ষরজ্ঞান নিতে পারে। চল্লিশ লাখ বই-খাতা বিতরণ করে দিয়েছিলেন। তখন জনসংখ্যা ছিল মাত্র সাত কোটি। এইভাবে গণশিক্ষার বিপ্লব সৃষ্টি হলো। তারপর তিনি শিল্পের দিকে নজর দিলেন। সেখানেও বিপ্লব ঘটালেন তিনি। বাংলাদেশের সব মিল-কারখানা ঘুরে ঘুরে দেখলেন। কারখানাগুলোতে তিনি দুই শিফটের কাজের ব্যবস্থা করলেন যা আগে ছিল না। এর কারণে দেশের উৎপাদন বাড়ল, রপ্তানি বাড়ল। সবকিছুর উৎপাদন দ্বিগুণ হয়ে গেল। এভাবেই তিনি বাংলাদেশটাকে উন্নতির শিখরে নিয়ে যেতে শুরু করলেন।

তিনি বলেন, জিয়াউর রহমান আমাকে বলেছেন, দেশের স্বার্থে রাজনীতি করা উচিত। তিনি গণতন্ত্রের জন্য অনেকগুলো কর্মসূচি দিয়েছিলেন যা থেকে বর্তমান বিএনপি অনেক দূরে অবস্থান করছে। তিনি তখন শান্তিপূর্ণ বিপ্লবী কর্মসূচি হাতে নিয়েছিলেন। তার হাত ধরেই ১৪শ খাল কাটা হলো, সেখানে পানি জমল, শীতের ফসল হলো। পাম্প লাগিয়ে ছিল নদী থেকে সব সময় পানি সরবরাহ করার জন্য। আমরা প্রথমবার আফ্রিকার হিলিতে চাল রপ্তানি করেছিলাম। চিনি রপ্তানি শুরু করেছিলাম বিদেশে। এগুলো সবই ইতিহাস হয়ে থাকবে।

তিনি আরও বলেন, তখনকার বিএনপি আর এখন বিএনপির বৈপ্লবিক চিন্তাধারায় অনেক পার্থক্য। সেজন্যই তারা পিছিয়ে পড়েছে। আমি বিশ্বাস করি, জিয়াউর রহমানের যে গণতান্ত্রিক রূপরেখা, জাতীয়তাবাদের যে চিন্তা-চেতনা ছিল তা যদি বিএনপি ধরে রাখতে পারত, তাহলে তারা এখন পিছিয়ে থাকত না। জিয়াউর রহমানের এই চিন্তা-চেতনা বিএনপির লোকজন কি মনেও রাখে না? নাকি ইচ্ছা করে বলে না, আমার জানা নেই। আর একটা জিনিস, যদি কেউ বিএনপির রাজনীতি করে তারা জিয়াউর রহমানকে শ্রদ্ধা করবে এটাই স্বাভাবিক। তবে তারা যদি বঙ্গবন্ধুকে অশ্রদ্ধা করে পক্ষান্তরে যারা আওয়ামী লীগ করে তারা বঙ্গবন্ধুকে শ্রদ্ধা করবে আর জিয়াউর রহমানকে অশ্রদ্ধা করবে তাহলে এটা সুস্থ রাজনীতি হতে পারে না। সম্পাদনা : মারুফ হাসান নাসিম

 

সর্বাধিক পঠিত