প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

‘ভবিষ্যৎ আরও সংকটাপন্ন হতে পারে’

আশিক রহমান : ব্যাংকের মালিক হিসেবে যারা কোম্পানি গঠন করেন তাদের স্বার্থের চেয়ে বড় স্বার্থ তো হলো যারা ব্যাংকের মাধ্যমে ট্রানজিকশন করেন, ডিপোজিট করেন তাদের। এই মানুষদের সংখ্যা অগণিত। এবং তারা বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ। ‘ব্যাংক কোম্পানি (সংশোধনী) বিল ২০১৭’ পাস করার ফলে ব্যাংকে বিদ্যমান যে নৈরাজ্য আছে সেটা আরও বেড়ে যাবে বলে আমার আশঙ্কা। আমাদের অর্থনীতির সঙ্গে আলাপকালে এমন মন্তব্য করেন অর্থনীতিবিদ ড. মাহবুব উল্লাহ।

তিনি বলেন, এটাকে অনেকেই বলছেন, এতে একধরনের পরিবারতন্ত্র চালু হলো ব্যাংকে। যাকে বলে ব্যাংকের ভেতরে কায়েমি স্বার্থ তৈরি হলো।

তিনি আরও বলেন, কেন জনস্বার্থ উপেক্ষা করে এই বিলটি পাস করা হলো তা তো আমার পক্ষে জানা সম্ভব নয়। তবে সংসদে যখন আইন পেশ হয় তখন আইনটির পক্ষে, কেন এরকম একটি আইন করার দরকার সেটার একটা যৌক্তিকতা আইনের মুখবন্ধের মধ্যে থাকে। আমি তো তার বিস্তারিত জানি না। তবে সাদামাটা ভাবে যেটা বলা যায় যে, এই বিল পাস হওয়ার বাংকের ভবিষ্যৎ আরও সংকটাপন্ন হয়ে উঠতে পারে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত