প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

নির্বাচন এলেই বিভিন্ন দাবিতে কর্মসূচি বাড়ে কেন
পুরো শিক্ষা ব্যবস্থার জাতীয়করণ চাই : হায়দার আকবর খান রনো

আশিক রহমান : নির্বাচনি বছরে পেশাজীবী সংগঠনগুলোর দাবি-দাওয়া ভিত্তিক কর্মসূচি বৃদ্ধির নানান কারণ থাকতে পারে। তবে অন্যতম বড় কারণ হয়তো তারা মনে করে সরকারের উপর চাপ সৃষ্টি করার এটাই বড় সুযোগ। সেই সুযোগটিই তারা নিতে চায় বলে মনে হয়। আমাদের অর্থনীতির সঙ্গে আলাপকালে এমন মন্তব্য করেন সিপিবির সভাপতিম-লীর সদস্য হায়দার আকবর খান রনো।

তিনি বলেন, আমরা বিষয়টি দেখি একটু অন্যভাবে। আমরা আসলে দেশে এক ধারার শিক্ষাব্যবস্থা চাই। একই সঙ্গে সমস্ত শিক্ষা ব্যবস্থাকেই জাতীয়করণ করা হোকÑ এটা আমাদের দাবি। এটা শুধু আমাদের একার দাবিই নয়, ছাত্র সংগ্রাম পরিষদেরও একই দাবি ছিল। ইংরেজি, বাংলা, মাদ্রাসাÑ বহু শিক্ষা ব্যবস্থা উঠিয়ে দিয়ে এক ধারার শিক্ষা ব্যবস্থা করতে হবে।

তিনি আরও বলেন, নন-এমপিও শিক্ষা ব্যবস্থার সুস্পষ্ট নীতিমালা নেই, কারণ সরকার কি এসব নিয়ে কিছু চিন্তা করে, মাথা ঘামায়? তাদের চিন্তা অন্য জায়গা, অন্য কিছু। কী করে ক্ষমতায় থাকা যায়, কী করে ক্ষমতায় আসা যায় ইত্যাদি নিয়ে তারা ব্যস্ত। শিক্ষা, স্বাস্থ্য, অন্ন, বস্ত্র, বাসস্থান মানুষের এসব মৌলিক চাহিদা নিয়ে সরকার ভাবে বলে মনে হয় না। কেন সরকার এসব নিয়ে চিন্তা করে না, ভাবে না তার উত্তর কী করে আমি দিব। সরকারই এর সঠিক উত্তর দিতে পারবে।

হায়দার আকবর খান রনো বলেন, আমরা মাদ্রাসা, স্কুল শিক্ষা আলাদাভাবে দেখতে চাই না। আমরা একভাবে, এক ধারার শিক্ষা ব্যবস্থার বাস্তবায়ন চাই। সবার জন্য সমান শিক্ষা ব্যবস্থা। শিক্ষা ব্যবস্থা যদি এক ধারায় নিয়ে আসা এবং সমস্ত শিক্ষা ব্যবস্থাই জাতীয়করণ করা উচিত। এটা যদি নিশ্চিত করা যায় তাহলে এসব আন্দোলন কর্মসূচি দেখা যাবে না।

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত