প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

পশ্চিম লন্ডনের হ্যারড থেকে স্থানান্তরিত হচ্ছে ডায়ানা ও দোদির যুগল মূর্তি

মরিয়ম চম্পা : পশ্চিম লন্ডনের বিখ্যাত ডিপার্টমেন্টাল স্টোর হ্যারড থেকে স্থানান্তরিত হচ্ছে প্রিন্সেস ডায়ানা ও তার বন্ধু দোদি আল ফায়েদের যুগলমূর্তি।
বিবিসির প্রতিবেদনে জানানো হয়, হ্যারডের আগের মালিক ও দোদির বাবা মোহাম্মদ আল ফায়েদের বাড়িতে ব্রোঞ্জের ভাস্কর্যটি নিয়ে যাওয়া হবে।
হ্যারড’র এক বিবৃতিতে বলা হয়, মূর্তিটি স্থানান্তরে এটিই সঠিক সময়। কেসিংটন প্রাসাদে ডায়ানার স্মরণে নতুন একটি ভাস্কর্য নির্মাণ ঘোষণার বছরখানেক পর পশ্চিম লন্ডন থেকে যুগলমূর্তিটি সরানোর ঘোষণা এলো। ১৯৯৭ সালের ৩১ অগাস্ট প্যারিসে এক গাড়ি দুর্ঘটনায় প্রিন্সেস ডায়ানা ও তার বন্ধু দোদি মারা যান। দোদির বাবা মোহাম্মদ বরাবরই এ ঘটনাকে ‘দুর্ঘটনা নয়’ বলে অভিহিত করলেও ব্রিটিশ আনুষ্ঠানিক তদন্তে তার অভিযোগ সঠিক নয় বলে প্রমানিত হয়।
২০০০ সালে মিশরীয় বংশোদ্ভূত মোহাম্মদ ফায়েদ রাজপরিবারের সঙ্গে হ্যারডের বাণিজ্যিক সম্পর্ক প্রত্যাহার করেন। পাঁচ বছর পর দোকানের ভেতর তিনি ব্রিটিশ রাজপরিবারের সাবেক বধু ডায়ানা ও তার ছেলে দোদির মূর্তি উন্মোচন করেন। ২০১০ সালে কাতারের রাজপরিবারের কাছে জমকালো এ দোকানটি দেড়শো কোটি পাউন্ডে বেচে দেন তিনি। হ্যারডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মাইকেল ওয়ার্ড বলেন, আল ফায়েদের কাছে মূর্তিটি ফিরিয়ে দেওয়ার এটাই সঠিক সময় বলে মনে করছি আমরা। বিবিসি

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ