প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

৫৭ ধারা বনাম গণমাধ্যমের স্বাধীনতা

গোলাম মোর্তোজা : মিডিয়া এবং সাংবাদিকের স্বাধীনতার জন্য সরকার কাজ করবে, এমনটি প্রত্যাশা করা ঠিক নয়। বাংলাদেশের মতো দেশের সরকার সেই রকম কাজ করে না। মিডিয়াতে যারা কাজ করে তাদের থেকে একটি জোড়ালো দাবি থাকা দরকার ছিল, কিন্তু সেই দাবিটি কখনোই জোড়ালো ছিল না। তাই সরকার তার নিজের মতো করে কাজ করে যাচ্ছে। সরকার যখন ৫৭ ধারার মতো একটি আইন করেছে। তখনো গণমাধ্যমের পক্ষ থেকে, সাংবাদিক সংগঠনের পক্ষ থেকে, যেই মাত্রায় কথা বলার দরকার ছিল, সেই কথাটি বলা হয়নি।

কিছু কথা বলার চারদিকে সমালোচনার পরে সেই ৫৭ ধারার কিছুটা পরিবর্তন করে ১৯ ও ২০ ধারায় সেই আইনগুলো রাখা হয়েছে। ৫৭ ধারার মতো আইন যে দেশে থাকে সেই দেশে গণমাধ্যমের স্বাধীনতা থাকে না। সেই রকম অবস্থায় এখনো চলছে। এখন কথা বলা যায় না। কথা বলতে গেলে একটি ভয় থাকে। তারপরও আমরা কথা বলছি। তাই আামদের যারা সংবাদকর্মী আছে, সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ যারা আছে, তারা সবাই মিলে একটি জোড়ালো প্রতিবাদ করতে হবে।

গণমাধ্যমের স্বাধীনতা, গণমাধ্যমের প্রতি হুমকি, মামলা এই বিষয়গুলোর বিরুদ্ধে একটি জোড়ালো প্রতিবাদ করতে হবে। সবাই একতাবদ্ধ হয়ে প্রতিবাদ করতে হবে। আলাদা আলাদাভাবে প্রতিবাদ করে কোনো লাভ হবে বলে আমি মনে করি না। সবাই প্রতিবাদ করতে হবে রাজনৈতিক দৃষ্টিকোণ বাদ দিয়ে।
পরিচিতি : সম্পাদক, সাপ্তাহিক
মতামত গ্রহণ : গাজী খায়রুল আলম
সম্পাদনা : মোহাম্মদ আবদুল অদুদ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত