প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

৬ দিনের সফরে আজ ভারতে যাচ্ছেন ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী

আশিষ গুপ্ত, নয়াদিল্লি : রোববার ৬ দিনের ভারত সফর শুরু করবেন ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু। গুজরাট দিয়ে সফর শুরু করার কথা রয়েছে তাঁর। এর আগে, চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং এবং জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবের মতো নেতানিয়াহুও সফর শুরু করছেন গুজরাট দিয়ে। রোববার আমেদাবাদে পৌঁছবেন ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী। সেখানে তাঁকে স্বাগত জানাবেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

সূত্রের খবর, ১৫ ও ১৬ জানুয়ারি ভারতের প্রধানমন্ত্রী মোদিসহ কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার হেভিওয়েট সদস্যদের সঙ্গে বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রীর। সাক্ষাৎ করবেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের সাথেও। আলোচনা করার কথা বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজের সাথে।
এরপর ১৭ জানুয়ারি ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রীর যাওয়ার কথা মুম্বাইয়ে।

সরকারি সূত্রের খবর, মুম্বাইয়ে গিয়ে ইহুদিদের ‘চাবার হাউস’-এ যাবেন তিনি। ২০০৮ সালের ২৬ নভেম্বর লস্কর-ই-তইবা জঙ্গিদের হামলায় রক্তাক্ত হয়েছিল চাবার হাউস। ১৮ জানুয়ারি তেল আবিব রওনা হওয়ার আগে কিছুক্ষণের জন্য আগ্রাতে যাওয়ার কথা রয়েছে তাঁর।

রাজনৈতিক দিক থেকে যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ তাঁর এবারের সফর। প্রজাতন্ত্র দিবসের প্রাক্কালে তাঁর ভারত সফর বিশেষ বার্তা বহন করছে বলেই মনে করছে আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিশেষজ্ঞরা। এই সফরে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয় আলোচনায় প্রাধান্য পাবে। প্রতিরক্ষা, কৃষি ও জলসম্পদ বন্টন থাকছে আলোচ্যসূচীতে।

এই সফর নিয়ে সাংবাদিক বৈঠক করেন ভারতে নিযুক্ত ইসরায়েলি রাষ্ট্রদূত ড্যানিয়েল কারমন। তিনি জানান, নতুন কিছু উদ্ভাবনই এবারের সফরের অ্যাজেন্ডা। সেটা যেকোনও ক্ষেত্রই হতে পারে, যেখানে দুই দেশের যৌথ উদ্যোগ কাজ করবে। বিশেষত, তথ্যপ্রযুক্তি ও কৃষির ওপর জোর দিতে আগ্রহী দুই দেশ।

কারমন আশাবাদী, পরিবেশ সংক্রান্ত বিষয়ে আলোচনা হবে এবারের সফরে। আলোচনা চলবে শিল্পোদ্যোগ নিয়ে। জানুয়ারির ১৫ তারিখ প্রধানমন্ত্রীদের সাক্ষাৎ ছাড়াও, সচিব পর্যায়ের বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে। ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে এবার ভারতে আসছেন ১৩০ জন শিল্পপতি। তাদের সামনে ভারত-ইসরায়েলের ফ্রি ট্রেডের বিষয়ে আলোচনা হবে বলেও এদিন জানিয়েছেন কারমন।

প্রসঙ্গত, গত জুলাইয়ে ইসরায়েল সফরে তেল আবিবে দুটি বড় প্রতিরক্ষা চুক্তি সারে ভারত। ইসরায়েলের সঙ্গে ভারতের ১৪০ কোটির চুক্তি হয়। যে চুক্তি অনুযায়ী, ১০টি হেরন ড্রোন ও দুটি এয়ারবোন আর্লি ওয়ার্নিং সিস্টেম কেনার কথা রয়েছে ভারতের। নেতানিয়াহুই ভারত সফরে আসা দ্বিতীয় ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী। ২০০৩ সালে ভারতে এসেছিলেন তদানীন্তন ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী অ্যারিয়েল শ্যারন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ