তাজা খবর



গত বছর সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৭,৩৯৭, আহত ১৬,১৯৩

আমাদের সময়.কম
প্রকাশের সময় : 13/01/2018 -13:31
আপডেট সময় : 13/01/ 2018-13:34

রবিন আকরাম: বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতি জানিয়েছে, গত বছর অর্থাৎ ২০১৭ সালে সারা দেশে সড়ক দুর্ঘটনায় ৭ হাজার ৩৯৭ জন নিহত ও ১৬ হাজার ১৯৩ জন আহত হয়েছে।

শনিবার সকালে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতির মহাসচিব মো. মোজাম্মেল হক চৌধুরী এ তথ্য তুলে ধরেন।

দেশের জাতীয়, আঞ্চলিক ও অনলাইন সংবাদপত্রে প্রচারিত সড়ক দুর্ঘটনার সংবাদ মনিটরিং করে এই প্রতিবেদন তৈরি করে সংগঠনটি।

এতে দেখা গেছে, ২০১৭ সালের ১ জানুয়ারি থেকে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত ছোট-বড় ৪ হাজার ৯৭৯টি সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছে সর্বমোট ৭ হাজার ৩৯৭ জন এবং আহত হয়েছে ১৬ হাজার ১৯৩ জন।

এর মধ্যে হাত, পা বা অন্য কোনো অঙ্গ হারিয়ে চিরতরে পঙ্গু হয়েছে ১ হাজার ৭২২ জন। এসব দুর্ঘটনায় ক্ষয়-ক্ষতির পরিমাণ দাঁড়িয়েছে জিডিপির প্রায় দেড় থেকে দুই শতাংশ।

এ সময় ১ হাজার ২৪৯টি বাস, ১ হাজার ৬৩৫টি ট্রাক ও কাভার্ডভ্যান, ২৭৬টি হিউম্যান হলার, ২৬২টি কার, জিপ, মাইক্রোবাস, ১ হাজার ৭৪টি অটোরিকশা, ১ হাজার ৪৭৫টি মোটরসাইকেল, ৩২২টি ব্যাটারিচালিত রিকশা, ৮২৪টি নছিমন-করিমন দুর্ঘটনার কবলে পড়ে।

সড়ক দুর্ঘটনা পর্যবেক্ষণ প্রতিবেদনটি পর্যালোচনা করে দেখা গেছে, ২০১৬ সালে ৪ হাজার ৩১২টি সড়ক দুর্ঘটনায় ৬ হাজার ৫৫ জন নিহত ও ১৫ হাজার ৯১৪ জন আহত হয়েছিল। ২০১৬ সালের তুলনায় ২০১৭ সালে মোট দুর্ঘটনা ১৫ দশমিক ৫ শতাংশ, নিহত ২২.২ শতাংশ, আহত ১.৮ শতাংশ বেড়েছে।

বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতির পর্যবেক্ষণে সড়ক দুর্ঘটনার কারণ হিসেবে বলা হয়েছে- বেপরোয়া গতিতে গাড়ি চালানো, বিপদজনক অভারটেকিং, রাস্তা-ঘাটের নির্মাণ ত্রুটি, ফিটনেস বিহীন যানবাহন এবং যাত্রী ও পথচারীদের অসতর্কতা।

চলন্ত অবস্থায় মোবাইল বা হেড ফোন ব্যবহারের কথাও বলা হয়েছে। এছাড়া মাদক সেবন করে যানবাহন চালানো, মহাসড়ক ও রেলক্রসিংয়ে ফিডার রোডে যানবাহন উঠে পড়া, রাস্তায় ফুটপাত না থাকা বা ফুটপাত বেদখলে থাকায় রাস্তার মাঝ পথে পথচারীদের যাতায়াত।

সড়ক দুর্ঘটনা রোধে ট্রাফিক আইন, মোটরযান আইন ও সড়ক ব্যবহার বিধিবিধান সম্পর্কে স্কুল-কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য, মসজিদ, মন্দির, গির্জায় জনসাধারণের জন্য ব্যাপক প্রচারে সুপারিশ করা হয়েছে। টিভি চ্যানেল ও সংবাদপত্রে সড়ক দুর্ঘটনা প্রতিরোধে ব্যাপক প্রচার চালানো। জাতীয় ও আঞ্চলিক মহাসড়কের পাশ থেকে হাট-বাজার অপসারণ করা, ফুটপাত দখল মুক্ত করা। এছাড়া রোড সাইন (ট্রাফিক চিহ্ন) স্থাপন করা, জেব্রাক্রসিং আঁকা, চালকদের পেশাদারি প্রশিক্ষণ ও নৈতিক শিক্ষার ব্যবস্থা করাসহ বেশ কিছু সুপারিশ করা হয়েছে।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, তত্ত্বাবধায়ক সরকারের প্রাক্তন উপদেষ্টা ড. হোসেন জিল্লুর রহমান, পিএসসির প্রাক্তন চেয়ারম্যান ও দুর্ঘটনা প্রতিরোধ সংগঠন ফুয়ারার সভাপতি ইকরাম আহম্মেদ, বুয়েটের দুর্ঘটনা গবেষণা কেন্দ্রের সহকারী অধ্যাপক কাজী সাইফুন নেওয়াজ, প্রাক্তন সংসদ সদস্য হুমায়ন কবির হিরু, বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. হারুন অর রশিদ প্রমুখ।

এক্সক্লুসিভ নিউজ

বিএনপির নির্বাচনি রূপরেখা দেখার অপেক্ষায় আছি: ওবায়দুল কাদের

আনিস রহমান: আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও... বিস্তারিত

পার্বত্য চট্টগ্রামের সার্বিক উন্নয়নে শান্তি চুক্তি বাস্তবায়ন করছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী

হ্যাপি আক্তার: বর্তমান সরকার পার্বত্য চট্টগ্রামের সার্বিক উন্নয়নের লক্ষ্যে শান্তি... বিস্তারিত

চোখের জলে শেষ হলো আখেরি মোনাজাত

ওমর শাহ: দুনিয়াতে কল্যাণ ও আখেরাতে মুক্তি কামনায় শেষ হলো... বিস্তারিত

বিএনপি সংলাপের মুখোশ পরে নির্বাচন বানচালের ষড়যন্ত্র করছে: তথ্যমন্ত্রী

আনিস রহমান: বিএনপি সংলাপের মুখোশ পরে নির্বাচন বানচালের ষড়যন্ত্র করছে... বিস্তারিত

মানসম্মত বাংলায় রেডিও অনুষ্ঠান করার নির্দেশ

জুয়াইরিয়া ফৌজিয়া : রেডিও স্টেশনগুলোকে মানসম্মত বাংলা ব্যবহার করে অনুষ্ঠান... বিস্তারিত

রোহিঙ্গাদের পাশাপাশি স্থানীয়দের জন্যও ত্রাণ সহায়তা প্রয়োজন: বিশ্বব্যাংক

ওমর শাহ: বিশ্বব্যাংকের একজন উর্ধতন কর্মকর্তা বলছেন, মিয়ানমার থেকে বাংলাদেশে... বিস্তারিত





আজকের আরো সর্বশেষ সংবাদ

Privacy Policy

credit amadershomoy
Chief Editor : Nayeemul Islam Khan, Editor : Nasima Khan Monty
Executive Editor : Rashid Riaz,
Office : 19/3 Bir Uttam Kazi Nuruzzaman Road.
West Panthapath (East side of Square Hospital), Dhaka-1205, Bangladesh.
Phone : 09617175101,9128391 (Advertisement ):01713067929,01712158807
Email : editor@amadershomoy.com, news@amadershomoy.com
Send any Assignment at this address : assignment@amadershomoy.com