Skip to main content

স্কুলের পাঠ্যবইয়ে ‘মুসলমানদের হিরো’ জাকির নায়েক! তদন্তে এনআইএ

স্কুলের পাঠ্যবইয়ে ‘মুসলমানদের হিরো’ জাকির নায়েক! তদন্তে এনআইএ
ওমর শাহ: ভারতের উত্তর প্রদেশে আলিগড়ের একটি স্কুলের পাঠ্যবইয়ে জাকির নায়েককে ‘মুসলিমদের হিরো’ পরিচয় করিয়ে দেওয়ায় বিতর্কের মুখে পড়েছে স্কুল কর্তৃপক্ষ। বিষয়টি প্রকাশ্যে আসার পর স্কুলকে নোটিশ পাঠিয়েছে আলিগড়ের প্রাথমিক শিক্ষাবিভাগ। বিষয়টি নিয়ে নতুন করে তদন্তে নেমেছে ভারতের গোয়েন্দা সংস্থা এনআইএ। এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়, আলিগড়ের ‘ইসলামিক মিশন স্কুল’ এর ‘ইলমুন নাফে’ বইয়ের ৪২ নম্বর পাতায় ইসলামের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিত্বদের মধ্যে নয় জনের ছবি ছাপা হয়। ছবির নিচে খালি জায়গায় তাদের নাম লেখার জন্য বলা হয়েছে। ওই নয় ব্যক্তির মাঝে জাকির নায়েকেরও ছবি রয়েছে। ওই স্কুলই এই বইটি প্রকাশ করে। একজন বিতর্কিত ব্যক্তিকে ‘মুসলিমদের হিরু’ হিসেবে পরিচয় করিয়ে দেওয়ায় স্কুলটির অনুমোদন বাতিল করা হবে বলে জানিয়েছে প্রাথমিক শিক্ষা বিভাগ। এরকম একজন বিতর্কিত ব্যক্তিকে কেন স্কুলের বইয়ে নায়ক হিসেবে দেখানো হচ্ছে? এই প্রশ্নের জবাবে স্কুলটি জানিয়েছে, দু’বছর আগে যখন এই বই ছাপা হয়েছিল, তখন জাকির নায়েকের বিরুদ্ধে কোনোও মামলা ছিল না। কিছুদিনের মধ্যেই নতুন বই ছাপানো হবে।   ইসলামিক রিসার্চ ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা জাকির নায়েকের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসবাদে উৎসাহ দেওয়ার অভিযোগে তার সংস্থার কার্যক্রম নিষিদ্ধ করে ভারত সরকার। জাকির নায়েকের সম্পত্তি বাজেয়াপ্তসহ তার মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠান পিসটিভিও বন্ধ করে দেওয়া হয়। ২০১৬ সালে দেশ ছেড়ে চলে যাওয়ার পর তিনি মালয়েশিয়ায় অবস্থান করছেন বলে জানা গেছে। তাকে ইন্টারপোলের মাধ্যমে দেশে ফিরিয়ে এনে বিচারের মুখোমুখি করার চেষ্টা করছে ভারত সরকার। তবে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় এনআইএ করা আবেদন বাতিল করে দেয় ইন্টারপোল। তবে এনআইএ ফের ইন্টারপোলে আবেদন করবেন বলে সর্বশেষ সংবাদ প্রকাশ হয়েছে। সূত্র: উর্দু টাইমস ও ডেইলি পাকিস্তান

অন্যান্য সংবাদ