প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

নব্য বঙ্গবন্ধু প্রেমিকদের সম্পর্কে সতর্ক থাকতে হবে : কবরী

রফিক আহমেদ : বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের স্টিয়ারিং কমিটির আহ্বায়ক, সাবেক সংসদ সদস্য সারাহ বেগম কবরী বলেছেন, নব্য বঙ্গবন্ধু প্রেমিকদের সম্পর্কে সতর্ক থাকতে হবে।

রোববার বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট শাহবাগ থানা শাখার উদ্যোগে সেগুনবাগিচায় মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

সারাহ বেগম কবরী বলেন, জাতীয় চার নেতার মত যারা জীবনে-মরণে বঙ্গবন্ধুর কথা বলেছেন এবং বঙ্গবন্ধুর জন্য জীবন দিয়েছেন তাদের মত নেতা দরকার। স্বাধীনতার পর খন্দকার মোস্তাক, ওবায়দুর রহমান ও তাহের উদ্দিন ঠাকুররা বঙ্গবন্ধুর অনেক গুণকীর্তন করেছিলেন। কিন্তু ৭৫ সালের ১৫ আগস্ট তারাই বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করেছে। আজ আওয়ামী লীগে ও বিভিন্ন সংগঠনে এমন কিছু লোকজন ঢুকে পড়েছে, দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের ভাষায় তারা কাউয়া। এই কাউয়ারাই দলের ক্ষতি করে। যে দল ক্ষমতায় থাকে সেই দলেই তারা ঢুকে তাদের স্বার্থ হাসিলের চেষ্টা করে।

তিনি বলেন, নব্য বঙ্গবন্ধু প্রেমিকরা যাতে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটে না ঢুকতে পারে সেই সম্পর্কে জোটের নেতাকর্মীদের সতর্ক থাকতে হবে। বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট আমরা আজ থেকে ৪০ বছর আগে গঠন করেছিলাম। বসন্তের কোকিলরা যাতে এই সংগঠনের সদস্য হতে না পারে সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। সাংস্কৃতিক অঙ্গণে এখন অনেকেই বঙ্গবন্ধু প্রেমিক ও আওয়ামী লীগার দেখা যাচ্ছে। দল যেদিন ক্ষমতায় থাকবে না তাদের খুঁজেও পাওয়া যাবে না। এই সংগঠন বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী একটি সংগঠন।

তিনি আরো বলেন, এই সংগঠনের নেতাকর্মীরা কি পেল আর কি পেল না সেদিকে তাকাই না। আজ কিছু কিছু সাংস্কৃতিক কর্মী চাওয়া-পাওয়ার জন্য বিভিন্ন সংগঠনে অন্তর্ভূক্ত হচ্ছেন। তাদের মূল উদ্দেশ্য নিজেদের আখের গোছানো। জাতির ক্রান্তিকালে এই সংগঠন মাঠে থাকে এবং থাকবে। জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সবাই ঐক্যবদ্ধ আছে এবং ভবিষ্যতেও থাকবে। শেখ হাসিনাকে আগামী নির্বাচনে বিপুল ভোটে জয়ী করতে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ ভাবে কাজ করার আহ্বান জানান তিনি।

আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট শাহবাগ থানা শাখার উপদেষ্টা দিলীপ সরকার। প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন জোটের সাধারণ সম্পাদক অরুন সরকার রানা। অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন হাবিবউল্লাহ রিপন ও বিদ্যুৎ সরকারসহ জোটের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত