প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

পুলিশের বিরুদ্ধে দাঁড়ানো এক্টিভিস্ট এরিকা গার্নারের মৃত্যু

প্রিয়াংকা পান্ডে: ২০১৪ সালে ট্যাক্স ছাড়া সিগারেট বিক্রয়ের দায়ে পুলিশি ধড়পাকড়ে মৃত এরিক গার্নার কন্যা এরিকা আর নেই। শনিবার, মাত্র ২৭ বছর বয়সে অ্যাজমা থেকে হৃদকম্পন বন্ধ হয়ে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন এরিকা।

অ্যাজমা অ্যাটাকের জন্য গতসপ্তাহে ব্রুকলিনের একটি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন এরিকা। সেখানেই প্রাণত্যাগ করেন তিনি। যদিও হাসপাতাল থেকে তার মৃত্যুর কারণ নিশ্চিত করা হয়নি।

মেয়ের মৃত্যুতে এরিকার মা বলেন, ‘আমি একটা কথাই বলতে চাই, সে একজন যোদ্ধা ছিলো। জীবনের লড়াইয়ে অনেক ভালোভাবেই লড়েছে সে।’

২০১৪ সালের ১৭ জুলাই নিউ ইয়র্ক পুলিশের সঙ্গে হাতাহাতির এক পর্যায়ে পুলিশ গলা চেপে ধরলে অ্যাজমা অ্যাটাকে শ্বাসরুদ্ধ হয়ে মারা যায় এরিকার বাবা এরিক গার্নার।

এরিকের মারা যাওয়ার সময়কার ভিডিও ধারণ করেছিলো এরিকের এক বন্ধু। সেসময় এরিক অনেকবার পুলিশকে অনুরোধ করে বলেছে তার নিঃশ্বাস আটকানোর কথা। কিন্তু এরপরও পুলিশ আইনবিরুদ্ধভাবে এরিককে আটকে রেখেছিলো।

৪৩ বছরের জীবনে ৩০বারের বেশি হাজতবাস করেছিলো এরিক। কৃষ্ণাঙ্গ হওয়ায় বিভিন্ন সময় তাকে এধরণের হয়রানির সম্মুখীন হতে হয়েছে। মৃত্যুর সময়ও তার মুখে এসব কথাই ছিলো। বাবার মৃত্যুর পর এরিকাও আমৃত্যু এবিষয়েই আওয়াজ তুলেছে। এনওয়াই টাইমস

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত