প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

কারাগারে চিকিৎসা সেবায় ধনী-গরিবের বৈষম্য

জুয়াইরিয়া ফৌজিয়া : দেশে কারাবন্দীদের জন্য চিকিৎসা সেবা নেই বললেই চলে। কারণ দেশের ৬৮ হাজার কারাবন্দীর জন্য চিকিৎসক রয়েছে মাত্র ৬ জন। তবে ক্ষমতাবান কারাবন্দীরা চিকিৎসা নিচ্ছেন কারাগারের বাইরে থেকে। এতে করে চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন সাধারণ এবং গরিব কারাবন্দীরা। সূত্র : ডিবিসি নিউজ

দেশের ৬৮টি কারাগারে এখন বন্দীর সংখ্যা প্রায় ৬৮ হাজার। এর মধ্যে কেরানিগঞ্জ বাদে বাকি ৬৭টি কারাগারে হাসপাতাল আছে একটি করে। তবে চিকিৎসক মাত্র ৬ জন। আর কেউ অসুস্থ হয়ে পড়লে চিকিৎসার জন্য বাইরে পাঠাতে অ্যাম্বুলেন্স রয়েছে মাত্র ৯টি। এ সুযোগে বাইরের হাসপাতালে দিনের পর দিন চিকিৎসা নিচ্ছেন ভিআইপি কারাবন্দীরা।

অনেকের অভিযোগ, রোগী সেজে দীর্ঘদিন কারাগারের বাইরে ছিলেন হত্যা মামলার আসামি সংসদ সদস্য আমানুর রহমান রানা, যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত শীর্ষ সন্ত্রাসী তোফায়েল আহমেদ জোসেফ, ইয়াবা ব্যবসায়ী আমিন হুদাসহ আরও অনেকে।

কারা অধিদপ্তরের হিসেব মতে, এখনো ১শ’রও বেশি বন্দী কারাগারের বাইরে হাসপাতালে দিন কাটাচ্ছে।

কারা মহাপরিদর্শক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল সৈয়দ ইফতেখার উদ্দীন বলেন, ৬৮টি কারাগারে ১২ জন মনোবিজ্ঞানীসহ ১২৯ জন চিকিৎসক থাকার কথা থাকলেও বেশিরভাগ পদ খালি পড়ে আছে। এমনকি কেরানীগঞ্জে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে আছে মাত্র ২ জন চিকিৎসক।

মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান রিয়াজুল হক বলেন, কারাগারে চিকিৎসা সেবার এই রকম অবস্থার জন্য সবচেয়ে বড় ভুক্তভোগী সাধারণ ও গরীব বন্দীরা। চিকিৎসা সেবা না পেয়ে এইসব বন্দীর মধ্যে মৃত্যুর ঘটনাও ঘটছে। এটি মানবাধিকার লঙ্ঘনের সামিল।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত