প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

হ্যাপি আফরিনের বাঁচার আকুতি
`এত তাড়াতাড়ি আপনজনদের ছেড়ে যেতে চাই না’

আল-আমীন আনাম: হ্যাপি আফরিন। ২০১২ সালে রবি ট্যালেন্ট হান্ট থেকে উঠে আসা এই কণ্ঠশিল্পী এখন মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছেন। হাসপাতালের বেডে শুয়ে ২২ বছর বয়সী এই তরুণী ফেসবুকে বাঁচার আকুতি জানিয়ে স্ট্যাটাস বলেন, ‌রক্ত দেয়া হচ্ছে শরীরে মরতে ভয় হয় না কিন্তুু এত তাড়াতাড়ি আপনজনদের ছেড়ে যেতে চাই না’।

এনিমিয়ায় আক্রান্ত হ্যাপিকে গত ২৩ তারিখে রাজধানীর নর্দার্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এরপর অবস্থার অবনতি হলে শুক্রবার রাজধানীর শমরিতার আইসিইউতে হ্যাপিকে নেওয়া হয়।

হ্যাপির বাবা একজন গাড়িচালক। হ্যাপি নিজে পড়াশোনার পাশাপাশি টুকটাক গান করতেন। হ্যাপির মা শাহনাজ আক্তার বলেন, আমার মেয়ে এনিমিয়ায় আক্রান্ত। রক্ত শরীরে থাকে। কিছুদিন থেকে সেটা প্রকট আকার ধারণ করেছে। আমরা চিকিৎসা চালাচ্ছি। কিন্তু আমাদের আর্থিক অবস্থা না ভালো থাকায় খুব চিন্তার মধ্য দিয়ে যাচ্ছি।

তিনি বলেন, ওর শরীর অনেক দুর্বল। উঠে বসতে পারে না। অবস্থা সংকটাপন্ন। এজন্য শমরিতার আইসিইউতে ভর্তি করা হয়েছে। এখানে অনেক টাকা লাগবে। কয়েকজন শিল্পী আমাকে সাহায্য করেছেন। জানি না সামনে যে টাকা লাগবে কোথায় পাবো।

হ্যাপি আফরিন রবি ট্যালেন্ট হান্ট থেকে প্রথম হৃদয় মিক্স থ্রিতে কাজ করেছেন। এরপর কণ্ঠশিল্পী শহিদ, বাঁধনের সাথে বেশ কিছু কাজ করেছেন। হ্যাপির বাসা নারায়ণগঞ্জের চাষাড়ায়।

হ্যাপিকে সহায়তা করতে চাইলে মা শাহনাজ আক্তারের এই নম্বরে 01726368194 যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত