প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

রোহিঙ্গাদের ফেরাতে বাংলাদেশের ফিজিক্যাল অ্যারেঞ্জমেন্ট চূড়ান্ত

তরিকুল ইসলাম : রোহিঙ্গাদের ফেরাতে ফিজিক্যাল অ্যারেঞ্জমেন্ট চূড়ান্ত করেছে বাংলাদেশ। বৃহস্পতিবার ঢাকায় আন্তঃমন্ত্রণালয় সভা ও রোহিঙ্গা বিষয়ক জাতীয় টাস্কফোর্সের পৃথক সভায় বিস্তারিত আলোচনার পর বিষয়টি চূড়ান্ত হয়।

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে জয়েন্ট ওয়ার্কিং গ্রুপের প্রথম বৈঠকটি আগামী ১৫ জানুয়ারি মিয়ানমারের নেপিড’তে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। আর সেখানেই এর চুক্তি স্বাক্ষরিত হতে পারে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের জেষ্ঠ্য কর্মকর্তারা।

অবশ্য আগামী মাসে নেপিডোতে ঐ বৈঠকে বসার আগেই বাংলাদেশ ফিজিক্যাল অ্যারেঞ্জমেন্ট পাঠাবে মিয়ানমারকে। সেখান থেকেই রেহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের পরবর্তী প্রক্রিয়াগুলো নিয়ে সিদ্ধান্ত হবে। ফিজিক্যাল অ্যারেঞ্জমেন্টের বিষয়ে আন্তঃমন্ত্রণালয় সভা ও রোহিঙ্গা বিষয়ক জাতীয় টাস্কফোর্সের পৃথক দুটি সভা রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন মেঘনায় অনুষ্ঠিত হয়। উভয় বৈঠকে পররাষ্ট্র সচিব মো. শহীদুল হক সভাপতিত্ব করেন।

এদিকে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম জানিয়েছেন, রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়া দ্রুত শেষ করে জানুয়ারির মধ্যেই প্রত্যাবাসন শুরু করতে কাজ করছে সরকার। এ নিয়ে নভেম্বরে নেপি’ডতে সই হওয়া অ্যারেঞ্জমেন্টের শর্ত মতে দুই মাসের মধ্যে অর্থাৎ ২২শে জানুয়ারির মধ্যে প্রত্যাবাসন শুরুর যে ডেটলাইন রয়েছে তা ধরেই সব প্রস্তুতি এগিয়ে চলছে। প্রতিমন্ত্রী বলেন, টেকনিক্যাল কারণে প্রত্যাবাসন শুরু করতে দু’চার দিন দেরি হলেও এটি হওয়ার বিষয়ে আমি দৃঢ়ভাবে আশাবাদী।

সরকারের অন্য দায়িত্বশীল সূত্রগুলোও বলছে, মিয়ানমার যেভাবে প্রস্তাব করেছে তা মেনে নেয়ায় এখন প্রত্যাবাসন শুরু করতে খুব একটা জটিলতা নেই। তাছাড়া এটি শুরুর বিষয়ে মিয়ানমারের ওপর আন্তর্জাতিক এবং বন্ধু রাষ্ট্রগুলোর চাপ রয়েছে। কাজেই মিয়ানমারের পক্ষে বিষয়টি অগ্রাহ্য করা প্রায় অসম্ভব।

ফিজিক্যাল অ্যারেঞ্জমেন্টে বাংলাদেশের পক্ষ থেকে ক্যাম্পে রোহিঙ্গাদের অবস্থান দীর্ঘস্থায়ী না হওয়া এবং পুড়িয়ে দেয়া রোহিঙ্গা গ্রাম এবং তাদের বাড়িঘর দ্রুত পুনর্নির্মাণ এবং নিজ নিজ বসত ভিটাতেই বাস্তুচ্যুতদের ফেরানোর তাগিদের কথা উল্লেখ করা হয়েছে। এছাড়া রোহিঙ্গারা কোন সীমান্ত দিয়ে ফেরত যাবে, বাংলাদেশের ট্রানজিট ক্যাম্প কোথায় থাকবে, কিভাবে রাখাইন ক্যাম্পে পৌঁছাবে তার বিস্তারিত ফিজিক্যাল অ্যারেঞ্জমেন্টে রয়েছে বলে জানিয়েছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্র।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত