প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বিনামূল্যের বই পেতে গুণতে হচ্ছে টাকা

ডেস্ক রিপোর্ট  : গাজীপুরের বেসরকারি বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে নতুন বছরের বিনামূল্যের সরকারি বই পেতে টাকা গুণতে হচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে জয়দেবপুর সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় গুদাম থেকে বই না পেয়ে বঞ্চিত শিক্ষকরা বিক্ষোভ করেছেন। বই বিতরণের আগেই গাজীপুর সিটি করপোরেশনের প্রতি ওয়ার্ডে প্রতিনিধি নিয়োগ করে এসব অর্থ আদায়ের অভিযোগ পাওয়া যায়।

জয়দেবপুর সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় গুদাম থেকে বিতরণ করা হচ্ছে বইবাংলাদেশ কিন্ডার গার্টেন অ্যাসোসিয়েশনের যুগ্ম সম্পাদক শাহীন পারভেজ অভিযোগ করে জানান, আগামী ১ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হবে বই উৎসব। এর আগেই গাজীপুর জেলা কিন্ডারগার্টেন (কেজি) অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মাসুদুর রহমানের নেতৃত্বে তার সহকর্মী আবু তাহের জেলার সব কিন্ডার গার্টেনের চাহিদাপত্র তৈরি করেছে। সরকারি বই সরবরাহ করার কথা বলে বিভিন্ন কিন্ডার গার্টেনের কাছ থেকে মোটা অঙ্কের টাকা আদায় করছেন তারা।

তিনি আরও জানান, গাজীপুর সিটির প্রতি ওয়ার্ডে ওই টাকা আদায়ের জন্য একজন করে প্রতিনিধিও নিয়োগ করেছেন তারা। যারা চাহিদামত ওই টাকা দেয়নি তাদের চাহিদাপত্র উপজেলা শিক্ষা অফিসেও দেওয়া হয়নি। ফলে ওইসব প্রতিষ্ঠান সরকারি বইও পাচ্ছে না।

বৃহস্পতিবার দুপুরে জয়দেবপুর সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যলয়ের গুদাম থেকে বই আনতে গিয়ে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক/প্রতিনিধিরা আংশিক বা পূর্ণ টাকা পরিশোধ করেও বই না পেয়ে বিক্ষোভ করেছেন। ওইসব টাকা আদায়ে গাজীপুর সদর উপজেলা শিক্ষা অফিসও জড়িত বলে অভিযোগ করছেন তারা।

টাকা দিয়েও বই না পাওয়ার অভিযোগ শিক্ষকদেরভুক্তভোগী শিক্ষকরা জানান, প্রতিষ্ঠান ও বইয়ের সেটের চাহিদা ভেদে ৬০০ টাকা থেকে ২ হাজার টাকা দিতে হচ্ছে। আবু তাহের ও তাদের প্রতিনিধির কাছে আগেই টাকা দিয়ে বৃহস্পতিবার ওই বই আনতে গিয়েছিলেন তারা। তারপরও সবাই বই পাচ্ছে না।

গাজীপুর সদর উপজেলার শিরিরচালা এলাকার মায়া একাডেমির সহকারী শিক্ষক রফিকুল ইসলাম জানান, স্কুলের শিক্ষার্থীদের জন্য ১২সেট বইয়ের জন্য আবু তাহের দুই হাজার টাকা চেয়েছেন। পরে বৃহস্পতিবার সঙ্গে ওই টাকা না থাকায় তিনি স্কুল কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি জানালে কর্তৃপক্ষ বিকাশের মাধ্যমে দুই হাজার টাকা পাঠায়।

কোনাবাড়ি এলাকার রিজো ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের সহকারী শিক্ষক শামীম জানান, তাদের স্কুলের শিক্ষার্থীদের জন্য বই নিতে এসে তাহেরকে দুই হাজার টাকা দিতে হয়েছে। একই ধরনের অভিযোগ করেছেন গাজীপুর সদর বাঘের বাজার এলাকার আব্দুল গণি মডেল একাডেমি, হাকিম মাতাব্বর স্কুলসহ কয়েক’শ স্কুলের শিক্ষকরা।

টঙ্গীর রিপাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজের নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক শিক্ষক বলেন, ‘ওই প্রতিষ্ঠানের জন্য ৬ষ্ঠ-অস্টম শ্রেণির ১৫ সেট বই পেতে ইতোপূর্বে আট হাজার টাকা নিয়েছে আবু তাহের। নবম শ্রেণির বইয়ের জন্য তিনি (তাহের) ১০ হাজার টাকা দাবি করেছেন।’

গাজীপুর জেলা কিন্ডার গার্টেন অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মো. মাসুদুর রহমান তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। তিনি বলেন, ‘আবু তাহের তার কোনও সহকর্মী নয়। সে যদি তার নাম করে টাকা আদায় করে থাকে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

গাজীপুর সদর উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা আনন্দ কুমার ভৌমিক সাংবাদিকদের জানান, বৃহস্পতিবার দুপুরে গুদাম থেকে শিক্ষকদের বই বিতরণকালে তিনি অন্য একটি অনুষ্ঠানে ছিলেন। হট্টগোলের খবর শুনে তিনি ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করেন। তবে তার কথা বলে বই বিতরণে টাকা আদায় করার বিষয়ে জানা নেই। কেউ এরকম টাকা নিয়ে থাকলে এটা তাদের ব্যাপার।

উৎসঃ বাংলা ট্রিবিউন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত