প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

চীনের ওপর নজর রাখতে সীমান্তে উট নামাবে ভারত

আশিষ গুপ্ত, নয়াদিল্লি : চীনা সেনাবাহিনী লাদাখের নিয়ন্ত্রণরেখা (এলওসি) পেরিয়ে গোপনে ভারতের ভূখণ্ডে ঢুকছে কি না, তার ওপর নজর রাখতে এবার উট নামানোর কথা ভাবছে ভারতের সেনাবাহিনী। সেই উট হবে দু’রকমের, এক ও দুই কুঁজের। তবে সেই উটের পিঠে থাকবেন না কোনো সেনা।

দেশটির সেনাবাহিনী জানিয়েছে, এক কুঁজের চেয়ে দুই কুঁজের উটের কথাই বেশি ভাবা হচ্ছে। যেহেতু দুই কুঁজের উট অনেক বেশি ভার বইতে পারে। আর এক কুঁজের চেয়ে অনেক কম সময়ে অনেক বেশি দূরে যেতে পারে দুই কুঁজের উট।

ভারতীয় সেনাবাহিনী ওই উটগুলো সিকিম, তিব্বত ও ভূটান, এই তিন দেশের সীমান্তে রাখতে চাইছে। ওই এলাকায় সমতল প্রায় নেই বললেই চলে। সেখানকার উচ্চতা ১২ হাজার থেকে ১৮ হাজার ফুটের মধ্যে।

নজরদারির জন্য উটগুলিকে প্রশিক্ষণ দেওয়ার কাজ প্রাথমিকভাবে শুরু হয়ে গেছে। তারা অস্ত্রশস্ত্র, গোলাবারুদ, যোগাযোগ ও নজরদারির যন্ত্রের কতটা সর্বাধিক ভার বইতে পারবে, সেটাও যাচাই করে দেখা হবে।

ভারতীয় সেনাবাহিনী এখন যে উটগুলো ব্যবহার করে, তার সবক’টিই এক কুঁজের। যারা ৪০ কেজির বেশি ভার বইতে পারে না। কিন্তু দুই কুঁজের উট বইতে পারে তার অন্তত সাড়ে ৫ গুণ ওজন।

ভারতের অনেক জায়গায় না পাওয়া এবং দুই কুঁজের উট সংখ্যায় কম হওয়ায় এতদিন এই উট ব্যবহার করেনি ভারতীয় সেনাবাহিনী।

সেনাবাহিনী জানিয়েছে, এখন ভারতের প্রতিরক্ষা গবেষণা উন্নয়ন সংস্থার (ডিআরডিও) প্রধান গবেষণাগার ‘ডিফেন্স ইনস্টিটিউট অফ হাই অলটিটিউড রিসার্চে (ডিহার) উটগুলোর প্রশিক্ষণ চলছে বলে জানা গেছে। প্রশিক্ষণের জন্য এ বছরের ফেব্রুয়ারিতেই সেখানে নিয়ে যাওয়া হয় দুই কুঁজের উটগুলিকে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত