প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সাজা হলে জনগণের আন্দোলন শুরু

ইনাম আহমেদ চৌধুরী : বাংলাদেশ জাতিয়তাবাদী দল (বিএনপি) চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার মামলার রায়ে তাকে সাজা দিয়ে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অযোগ্য ঘোষণা করে, রাজনীতির মাঠ থেকে তাকে দূরে রাখার চেষ্টা করা হলে জনগণ তা রুখে দেবে। বাংলাদেশের জনগণ সেই রায় কোনোভাবেই মেনে নেবে না এবং জনগণের তরফ থেকে তুমুল আন্দোলন গড়ে উঠবে। যার ফলে দেশব্যাপি একটা অস্থিতিশীল পরিস্থিতি তৈরি হতে পারে। নির্বাচনে যদি বিএনপি চেয়ারপার্সন অংশগ্রহন করতে না পারে, তাহলে সেই নির্বাচনের বৈধতা নিয়ে প্রশ্ন উঠবে। গণতন্ত্রের স্থিতিশীলতা থাকবে না এবং পুরো রাজনৈতিক পরিবেশ নিরর্থক হয়ে মুখ থুবড়ে পড়বে।

পরিস্থিতি দেখে মনে হচ্ছে, অল্প কিছুদিনের মধ্যেই মামলার রায় ঘোষণা হতে পারে। আর সেই রায়ে যদি বেগম খালেদা জিয়াকে নির্বাচন থেকে দূরে রাখার অবস্থা তৈরি হয়, তাহলে রাজনীতির আকাশে আরেকটা অশনি সংকেত দেখা যাবে। কেননা, খালেদা জিয়াকে রেখে দিয়ে বিএনপি সেই নির্বাচনে কোনোভাবেই অংশগ্রহণ করবে না। বিএনপি বিহীন একাদশ নির্বাচন হলে গণতন্ত্রের অস্তিত্ব নিয়ে নতুন করে প্রশ্ন তৈরি হবে। আর তেমন একটা পরিস্থিতি সৃষ্টি হলে, সেই পরিস্থিতি বিএনপি দুইভাবে মোকাবেলা করবে। রাজনৈতিকভাবে এবং আইনগতভাবে। রাজনৈতিকভাবে বিভিন্ন কর্মসূচি সহ জনগণকে সঙ্গে নিয়ে আন্দোলনে নেমে পড়বে বিএনপি এবং আইনিভাবে প্রয়োজনীয় সবধরনের পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।

পরিচিতি : ভাইস চেয়ারম্যান, বিএনপি
মতামত গ্রহণ : লিয়ন মীর
সম্পাদনা : মোহাম্মদ আবদুল অদুদ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত