প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

অর্কেস্ট্রা যাদুতে শুরুতেই জমজমাট বেঙ্গল উচ্চাঙ্গসঙ্গীত উৎসব

জাহাঙ্গীর বিপ্লব: প্রথম দিনেই জমে উঠছে ‘বেঙ্গল উচ্চাঙ্গসঙ্গীত উৎসব’। মঙ্গলবার সন্ধ্যা থেকে শুরু হওয়া এই উৎসবের প্রথম দিনেই ছিল জমকালো এবং উৎসবমূখর পরিবেশ। শ্রোতা-দর্শকদেরও বেশ সাড়া পাওয়া যায় উৎসবের উদ্বোধনী পর্বেই ড. এল সুব্রামানিয়াম বেহালায় আভোগী রাগ পরিবেশন করেন। যদিও আর্মি স্টেডিয়াম বাদ দিয়ে প্রথমবারের মতো রাজধানীর ধানমন্ডির আবাহনী মাঠে উৎসব অনুষ্ঠিত হওয়ার খবরে অনেকের মধ্যে একটা সংশয় ছিল। তাদের ধারণা ছিল হয়তো আগের আসরগুলোর মতো এবারের আসরেও তেমন কোনো দর্শক সমাগম হবে না। তবে সেই ধারণাকে ভুল প্রমাণ করে প্রথম দিনেই দর্শকের অভাবনীয় সাড়া লক্ষ্য করা যায়।

‘সঙ্গীত জাগায় প্রাণ- এ প্রতিপাদ্য সামনে রেখে মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭টায় শুরু হয় পাঁচ দিনব্যাপী এ উৎসব। তার সঙ্গে মৃদঙ্গমে সঙ্গত করেন শ্রী রামামূর্তি ধুলিপালা, তবলায় ছিলেন পণ্ডিত তন্ময় বোস এবং মোরসিং-এ ছিলেন সত্য সাই ঘণ্টশালা।

এরপরেই শুরু হয় প্রথম দিনের সেরা আকর্ষণ অর্কেস্ট্রা পরিবেশন। অর্কেস্ট্রা ‘যাদু’ নিয়ে মঞ্চে আসে নামকরা দল আস্তানা সিম্ফনি ফিলহারমোনিক। দলটি প্রথমে সিলেস কাজগালিব রচিত সিম্ফোনির কিছু অংশ এবং পি আই চাইকভস্কির বিখ্যাত রচনা ‘সোয়ান লেক’-এর কিয়দংশ পরিবেশন করে। অর্কেস্ট্রা পরিচালনা করেন আস্তানা সিম্ফনি ফিলহারমোনিক-এর আর্টিস্টিক ডিরেক্টর বেরিক বাত্যরখান।

উৎসবের প্রথম রাতে আরও পরিবেশন করেন রাজরূপা চৌধুরী (সরোদ), বিদূষী পদ্মা তালওয়ালকর (খেয়াল), ফিরোজ খান (সেতার), সুপ্রিয়া দাস (খেয়াল), রাকেশ চৌরাসিয়া (বাঁশি) ও পূর্বায়ণ চ্যাটার্জি (সেতার)।

এ বছর উৎসবটি উৎসর্গ করা হয়েছে গবেষক, চিন্তাবিদ ইমেরিটাস অধ্যাপক আনিসুজ্জামানকে। উৎসব চলবে ৩০ ডিসেম্বর পর্যন্ত প্রতিদিন সন্ধ্যা ৭টা থেকে ভোর ৫টা পর্যন্ত।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত