প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আমরা যেন বিজয় ছিনিয়ে আনতে পারি

ফকির আলমগীর : ২০১৭ সাল আমার খুব ভালো গিয়েছে। আমি মায়ামিতে ফোবানায় অংশগ্রহণ করেছি।
নেত্রীর সফরে বেরিয়ে তার সংবর্ধনায় গান গেয়েছি। আজ আমি আজীবন সদস্য হব পল্লী মা সংসদের। এটি একটি বড় অর্জন। ঋষিজ শিল্পী গোষ্ঠীর ৪১ বছর গেছে খুব বর্ণিল আয়োজনে। নেলসন ম্যান্ডেলার জন্মদিন উদযাপন করেছি। আমার একাধিক গ্রন্থ বেরিয়েছে এই বছর। ‘সুরমা নদীর গাঙচিল’সহ কতগুলো গ্রন্থ প্রকাশ হয়েছে। পারফরমেন্স ও লেখা লেখিতে খুব সফলতার বছর ছিল। আগামী ২৭ তারিখে আনু মুহাম্মদ, রকিবুল হাসান, শাইখ সিরাজ, মোজাম্মেল হোসেন পল্টু ও আমি ফকির আলমগীর আমাদের পাঁচজনকে পল্লী মা সংসদের আজীবন সদস্য করা হবে। এ বছর কলকাতা বইমেলা সফর করেছি।
রোহিঙ্গা সমস্যা ও বন্যায় সোচ্চার ছিলাম। আগামী বছরের কাছে প্রত্যাশা থাকবে ২১ শতকের পুরুষ ও বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আগামী বছর হল নির্বাচনের বছর। আমাদের স্বপ্ন উন্নয়নশীল দেশ। আমাদের আশা মুক্তিযুদ্ধের সপক্ষ শক্তি দেশ পরিচালনায় আসুক। এক্ষেত্রে আমাদেরকে সচেষ্ট থাকতে হবে এবং সোচ্চার থাকতে হবে।

শিল্পী, সাহিত্যিক, বুদ্ধিজীবী তাদের কাছেও চলমান বছরটা গুরুত্বপূর্ণ ছিল। আমাদের দেশে আজো মৌলবাদ, জঙ্গীবাদ, স্বাধীনতা বিরোধী শক্তি সচেষ্ট। ‘এই সন্তান বাংলা মায়ের নৌকায় ভরা পাল/ঠিকানায় ঠিক পৌঁছে যাব আমরা আগামী কাল।’ সৈয়দ শামসুল হকের কথা। ‘এই স্বপ্নের বাস্তবায়ন করে যেতে বানচাল/বাংলার বুকে এখনো রয়েছে ঘৃণ্য যে দালাল।’ ঘৃণ্য দালালেরা আমাদের স্বপ্নের বাস্তবায়ন বন্ধ করে দিয়েছে প্রায়। এটি একটি চ্যালেঞ্জ। আমাদের উন্নয়নের স্বপ্ন, গণতন্ত্রের স্বপ্ন, মুক্তিযুদ্ধের চেতনার স্বপ্ন। আমাদের দেশটাকে গড়ার স্বপ্ন, আমাদের ক্রীড়ানৈপুণ্য, আমাদের সাহিত্য সবকিছু স্থবির হয়ে যাবে যদি মৌলবাদী, স্বাধীনতা বিরোধী চক্রের উত্থান হয়। আমাদেরকে তাদের রুখে দেওয়ার জন্যে চ্যালেঞ্জ রয়েছে আগামী বছর । দালাল চক্র রয়েছে, জঙ্গীবাদ, মৌলবাদ রয়েছে, তাদের রুখে দেওয়ার জন্য কাজ করব। আগামী বছরটায় যেহেতু নির্বাচন, সেটি একটি গ্লোবাল মুভমেন্ট। তার আগে বিভিন্ন ক্ষেত্রে অর্জনগুলো ধরে রাখার জন্য সজাগ থাকতে হবে।

গত সোমবার বিটিভির ৫৩ বছর শেষ হয়ে ৫৪ বছরে পড়ল। আমি গান গেয়েছি। বিটিভির কারণেই আজ আমি ফকির আলমগীর। ওখানে আরও উপস্থিত ছিলেন ফেরদৌস ওয়াহিদ, ফরিদা পারভীন, ফাতেমা তুজ জোহরা, কিরণ চন্দ্র রায় এবং আরও অনেকেই। সেই ৬৭ সাল থেকে বিটিভিতে যাতায়াত। বিটিভি ভবন আমার কাছে মায়ের মতো। এত আপন মনে হয় যেন পরিবারের মতো, তাই ছুটে যাই। ১২টা এক মিনিটে কেক কেটেছি। আমার সঙ্গীত জীবনের ৫০ বছর। ‘ও সখিনা’, ‘মায়ের এক ধার দুধের দাম’ ‘ঘর করলাম না’ এসবই বিটিভিতে গাওয়া। টেলিভিশন তো একটাই ছিল। আমার জীবনের যত জনপ্রিয় গান। বিভিন্ন নাটকে, বিভিন্ন অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণের মাধ্যমে আজকের ফকির আলমগীর হয়ে উঠেছি। আমার জীবনে বিটিভির অশেষ অবদান রয়েছে। সেজন্যে তার ৫৪তম বছরে পদার্পণে বিশেষ শুভেচ্ছা জানাই। অগামী বছরটা বিভিন্ন কিছু দিয়ে আমরা যেমন স্বাধীনতার ৪৭ বছর পেরিয়ে এসেছি, যেহেতু স্বাধীনতার ৫০ বছর সামনেই। এবং নির্বাচনও আগামীতেই। বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন সামনে। এবং মুক্তিযুদ্ধের শক্তি, বিশেষ করে সাহিত্যিক, শিল্পী, প্রগতিশীলদের জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ আগামী বছরটা।
সেই সমস্ত ষড়যন্ত্রের জাল ছিন্ন করে আমরা যেন বিজয় ছিনিয়ে আনতে পারি এটাই আমার প্রত্যাশা।

পরিচিতি : মুক্তিযোদ্ধা ও গণসঙ্গীত শিল্পী
মতামত গ্রহণ : সানিম আহমেদ
সম্পাদনা : মোহাম্মদ আবদুর অদুদ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত