প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

পশ্চিম তীরে ইসরায়েল আরও কয়েক লাখ বসতি নির্মাণের পরিকল্পনা

সাইদুর রহমান : ট্রাম্পের জেরুজালেম স্বীকৃতির পর ইসরায়েল যেন আরও উন্মত্ত হয়ে উঠেছে। ট্রাম্পের ঘোষণা ইসরায়েলের অবৈধ বসতি নির্মাণকে যেন আন্তর্জাতিকভাবে বৈধ করে দিয়েছে। ইসরায়েলের গৃহায়ন এবং বসতি নির্মাণ বিষয়ক মন্ত্রী ইয়েভ গেলান্ট ঘোষণা দিয়েছেন, নেতানিয়াহু সরকার আগামী কয়েক বছরের মধ্যে অধিকৃত পশ্চিম তীরে নতুন আরও এক মিলিয়ন বসতি ইউনিট নির্মাণের পরিকল্পনা নিয়েছে।

ইসরায়েলি গৃহায়নমন্ত্রী বলেন, এই পরিকল্পনার ২০ থেকে ৩০ শতাংশ জেরুজালেম শহরে বাস্তবায়ন করা হবে।
ফিলিস্তিনের প্রবাসী এবং পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এ বিষয়টিকে ট্রাম্পের জেরুজালেম স্বীকৃতিরই প্রতিফলন এবং বাস্তবায়ন হিসেবে দেখছেন।

ইসরায়েলের বেসরকারি ‘চ্যানেল টেন’কে দেয়া এক বিবৃতিতে বলেন, নতুন বসতি নির্মাণ শুধু জেরুজালেমের বর্তমান সীমানা অন্তর্ভূক্ত করবে না বরং যেটাকে গ্রেটার জেরুজালেম বলা হয় সেটা এবং পশ্চিম জেরুজালেম অন্তর্ভূক্ত থাকবে। পূর্বও পশ্চিম জেরুজালেম সবই অন্তর্ভূক্ত থাকবে।

ইসরায়েলের গ্রেটার জেরুজালেমের টার্গেট হলো, অধিকৃত পূর্ব জেরুজালেমে অবস্থিত আদুমিম শহরতলীকেও বসতি স্থাপনার মধ্যে অন্তর্ভূক্ত করা। যেটা হবে পশ্চিম তীরের সর্ববৃহৎ বসতি।

গৃহায়নমন্ত্রী আরও বলেন, নতুন এই বসতি স্থাপনের উদ্দেশ্য হলো জেরুজালেম একমাত্র ইসরায়েলের রাজধানী এ ঘোষণার বাস্তবায়ন। সূত্র : আল-জাজিরা

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত