প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

জেলা ঘোষনার দাবীতে সক্রিয় হয়ে উঠছে পার্বতীপুরের বিভিন্ন সংগঠন প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরে নথি প্রেরন

সোহেল সানী, (দিনাজপুর) : প্রাকৃতিক সম্পদ ও উন্নত যোগাযোগ ব্যবস্থার দিক থেকে দেশের অন্যতম গুরুত্বপুর্ণ উপজেলা পার্বতীপুর কে জেলা ঘোষনা দাবী দিন দিন আরো জোরালো হচ্ছে। গত কয়েক বছর ধরে পার্বতীপুর কে জেলা ঘোষনার দাবি নিয়ে নানা মহলে আলোচনা অব্যাহত থাকলেও সম্প্রতি নতুন করে জোরে সোরে জেলার দাবী নিয়ে তৎপর উঠেছেন বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।
রবিবার সন্ধ্যায় উপজেলার রামপুর ইউনিয়নের বাসুপাড়া কালীমাতা মন্দির প্রাঙ্গণে আয়োজিত সনাতন ধর্মালম্বীদের এক ধর্মীয় আলোচনা সভায় পার্বতীপুর কে জেলা করার দাবী ও একাজের নানা তৎপরতার তথ্য তুলে ধরে বক্তব্য রাখেন- পার্বতীপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক আমজাদ হোসেন, পার্বতীপুর প্রেস ক্লাবের সাহিত্য ও প্রকাশনা সম্পাদক ও ট্রেড ইউনিয়ন নেতা প্রদীপ দত্ত, পৌর কাউন্সিল কৈলাস প্রসাদ সোনার ও উপজেলা পুজা উদযাপন পরিষদের সাধারন সম্পাদক প্রভাষক দিপেশ রায় প্রমুখ। তারা সরকারের কাছে পার্বতীপুর কে অবিলম্বে জেলা ঘোষানার দাবী জানিয়ে বলেন, বিশ্বমানের কয়লা খনি, কঠিন শিলা খনি ছাড়াও পার্বতীপুরে রয়েছে, চতুর্মুখি উন্নত সড়ক ও রেল যোগাযোগ অবকাঠামো, রয়েছে ৫২৫ মেগাওয়াট উৎপাদন ক্ষমতার কয়লা ভিত্তিক তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্র, জ¦ালানী তেলের রেলহেড অয়েল ডিপো, দেশের একমাত্র কেন্দ্রীয় লোকোমোটিভ কারখানা, দেশের বৃহত্তম এক মাত্র চতুর্মুখি রেলওয়ে জংশনটিও পার্বতীপুরে অবস্থিত।
বক্তারা দাবী করেন, দিনাজপুরের পুর্বাংশের বিরামপুর, পার্বতীপুর, ফুলবাড়ী, হাকিমপুর, নবাবগঞ্জ ও ঘোড়াঘাট উপজেলা কে নিয়ে সহজেই পার্বতীপুর জেলা বাস্তবায়ন সম্ভব। এর ফলে এ অঞ্চলের মানুষের আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন ত্বরান্নিত্ব হবে। আগামী দিনগুলিতে পার্বতীপুর জেলা বাস্তবায়নের আন্দোলন আরো জোরদার করা হবে বলে আওয়ামীলীগ নেতা আমজাদ হোসেন ঘোষনা দেন। তিনি বলেন, এব্যাপারে প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরসহ প্রশাসনিক পর্যায়ে বিভিন্ন দপ্তরে জেলা ঘোষনার দাবী সম্বলিত নথিপত্র পাঠানো হয়েছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ