প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

অনূর্ধ্ব-১৫ নারী ফুটবল দল
চ্যাম্পিয়ানের গৌরব অর্জনে গণমাধ্যম ব্যক্তিরা অভিনন্দন জানায়

কেএম হোসাইন : আমরা সকলে আনন্দিত আমাদের মেয়েদের এই অর্জনে। সাফ চ্যাম্পিয়ানশীপের শিরোপা জেতায় তাদের অভিনন্দন। সেই সাথে তাদের এই অগ্রযাত্রা যেনো জাতীয় দলে হয়ে গৌরব অর্জন করতে পারে।

ফারজানা রুপা’র সঞ্চালনায় একাত্তর টেলিভিশনের নিয়মিত অনুষ্ঠান একাত্তর জার্নালে তারা একথা বলেন।

মাছরাঙা টেলিভিশনের বার্তা প্রধান রেজোয়ানুল হক বলেন, আমাদের দেশে ফুটবলে দৈন্যদশা অবস্থার মধ্যে নারী অনূর্ধ্ব-১৫ ফুটবল দল ভারতকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ান হওয়ায়। অব্যশই তাদের অভিনন্দন জানায়। ফুটবলে ছেলের তেমন উল্লেখযোগ্য অর্জন নেই। কিন্তু গত কয়েক বছরে নারীরা বিভিন্ন টুর্নামেন্টে গৌরব বয়ে আনছে। ১৫ ছুঁয় ছুঁয় মেয়েরা যেভাবে খেলেছে তাদের স্কিল, টেকটিক,পাস দেখলাম তাতে অনেক পরিণত মনে হয়েছে। আমাদের এই মেয়েরা অনূর্ধ্ব-১৫ শিরোপাতে থেমে থাকবে না। তারা একদিন জাতীয় দলের হয়েও আমাদের জন্য গৌরব বয়ে আনবে।

অনলাইন অ্যাক্টিভিষ্ট আরিফ জেবতিক বলেন, আমাদের মেয়ে ফুটবলাররা যে গৌরব অর্জন করলো। তাদের অব্যশই অভিনন্দন। এই রকম বিজয়ের আসলে কোন জবাব হয না। তাদের বিজয়ে অনেকটা আবেগ-আপ্লুত হয়েছিলাম আমি। খুব ভালো লেগেছে তাদের এই অর্জনে। তাদের এগিয়ে যাওয়া পেছনে আমাদের সামাজিক একটা পরিবর্তন লক্ষণীয়। তেতুঁল হুজুরের দেশে মেয়েরা ফুটবল খেলছে। প্রত্যন্ত গ্রামে মেয়েরা ফুটবল খেলতে পারছে। এই পরিবর্তনটা আসলে আশা জাগানিয়। সামাজিক বিভিন্ন বাধাকে মোকাবেলা করে এগিয়ে যাচ্ছে সেজন্য তাদের উৎসাহ দিতে হবে।

জাতীয় মহিলা ফুটবল দলের সাবেক খেলোয়াড় মাহমুদা শারিফা অদিতি বলেন, আমাদের মেয়েদের এই অর্জনে আমরা অব্যশই আনন্দিত। তবে খালি আনন্দিত না হয়ে ফুটবল ফেডারেশন ও তাদের নারী ওয়েমেন্স উইংয়ের আরও যতœবান হতে হবে তাদের প্রতি। যাতে তারা ভবিষ্যত নিশ্চয়তা পায় খেলা মাঝে কোন ইনজুরির শিকার হলে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত