প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ভারতকে হারিয়ে মহিলা সাফ ফুটবলে বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়ন

 

 

 

এল আর বাদল : অনূর্ধ্ব-১৫ বছর বয়সের মেয়েদের জন্য দক্ষিণ এশিয়ান ফুটবলের (এসএএফ) আসর এটাই প্রথম। বিজয়ের মাসে ভারতকে হারিয়ে এই আসরটি জয় করে দেশবাসীর জন্য বাড়তি আনন্দের উপলক্ষ বয়ে আনলো লাল-সবুজের মেয়েরা। এই জয়ের মধ্যদিয়ে বাংলাদেশ দক্ষিণ এশিয়ার সেরা দলে পরিণত হলো।

আজ কমলাপুরে বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত অনূর্ধ্ব-১৫ বয়সের মেয়েদের প্রথম সাফ ফুটবলের শ্বাসরুদ্ধকর ফাইনালে বাংলাদেশ একমাত্র ভারতকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার অনন্য গৌরব অর্জন করলো। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ বিজয়ে দলের খেলোয়াড়, কোচ ও কর্মকর্তাদের অভিনন্দন জানিয়েছেন।

মহিলা সাফ ফুটবলের প্রথম আসরে দুর্দান্ত খেলে যাওয়া বাংলাদেশ দল একটি গোলও হজম করেনি। টুর্নামেন্টের শুরু থেকে ফাইনাল পর্যন্ত দাপটের সঙ্গে খেলে অপরাজিত থেকে প্রথম আসর জয় করলো লাল-সবুজের মেয়েরা। মহিলা ফুটবলে ফিফা র‌্যাংকিংয়ে বেশ এগিয়ে ভারত। তারা আছে ৫৭তম স্থানে। অথচ ১০০তম স্থানে থাকা বাংলাদেশের কাছে এ নিয়ে টানা দ্বিতীয় ম্যাচে হেরেছে ভারত। এর আগে গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে তাদের তিন গোলে হারিয়েছিল স্বাগতিক দলের মেয়েরা।
আসরে বাংলাদেশ অপরাজিত থেকেই এই শিরোপা জিতে। লিগের প্রথম ম্যাচে নেপালকে ৬-০ গোলে, দ্বিতীয় ম্যাচে ভুটান ৩-০ গোলে হারায় লাল-সবুজের দল। আর ভারত ৩-০ গোলে ভুটানকে এবং নেপালকে ১০-০ গোলে হারালেও স্বাগতিক বাংলাদেশের কাছে হেরে যায়।

রোববার বাংলাদেশের জয়ে একমাত্র গোলটি করেন শামসুন্নাহার। ম্যাচের ৪২ মিনিটে জটলা থেকে ল্যভেদ করে প্রতিশ্রুতিশীল এই স্ট্রাইকার। অবশ্য এর আগে ম্যাচের দ্বিতীয় মিনিটেই এগিয়ে যেতে পারত বাংলাদেশ। মাহমুদা খাতুনের শট জালে জড়িয়েও ছিল। কিন্তু বিধিবহির্ভূত বলে রেফারি গোলটি বাতিল করে দেন।

৩০ মিনিটে বাঁ প্রান্ত দিয়ে ফরোয়ার্ড তহুয়া খাতুন প্রতিপরে বিপদ সীমানায় ঢুকেও পড়েছিল। কিন্তু তার বাড়ানো বলে কেউ পা ছোঁয়াতে পারেনি বলেই বল জালে জড়াতে পারেনি বাংলাদেশ। দ্বিতীয়ার্ধেও আক্রমণের ধারাবাহিকতা বজায় রাখে বাংলাদেশের মেয়েরা। ১২ মিনিটে বাংলাদেশের একটি সহজ প্রচেষ্টা ব্যর্থ হয়। আঁখি খাতুনের শট ভারতীয় গোলরক রখে দেয়। চার মিনিট পর তহুরা খাতুন সহজ সুযোগ হাতছাড়া করে। দুই ডিফেন্ডার ও গোলরকে কাটিয়ে খালি পোস্টেও বল পাঠাতে পারেনি সে। শেষ বাঁশি বাজার পাঁচ মিনিট আগে শামসুন্নাহার আরো একটি সুযোগ হাতছাড়া করেন। এমনি করে বেশ কয়েকটি সুযোগ হাতছাড়া করায় ব্যবধান বড় করতে পারেনি স্বাগতিক দলের মেয়েরা।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত