প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

দেশে ফিরতে চান কাতালান নির্বাসিত নেতা পুজদেমন

আনন্দ মোস্তফা: কাতালোনিয়ার স্বাধীনতাকামী নেতা চার্লস পুজদেমন দেশে ফায়ার আসার জন্য স্পেন সরকারের অনুমতি চেয়েছেন। কাতালোনিয়ার স্বাধীনতা ঘোষণার পর স্পেন কেন্দ্রীয় সরকার রাজ্যটির স্বায়ত্তশাসন কেড়ে নিয়ে প্রাদেশিক সরকারকে বরখাস্ত ও এর সদস্যদের গ্রেফতার শুরু করলে পুজদেমন বেলজিয়ামে স্বেচ্ছায় নির্বাসনে যান।

গত ডিসেম্বরের ২১ তারিখে কাতালোনিয়ার নতুন নির্বাচনে স্বাধীনতাকামী দলগুলো নিরুঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাওয়ায় দেশে ফিরে আবারো কাতালান প্রেসিডেন্ট হতে চাচ্ছেন। ‘অবৈধ’ গণভোটের আয়োজন, স্বাধীনতা ঘোষণা ও ‘বিচ্ছিন্নতাবাদী’ কার্যকলাপে ভূমিকা রাখার কারণে তার উপর স্পেন সরকারের গ্রেফতারি খড়গ ঝুলছে।

নির্বাচনে জয়লাভের পরপরেই অঞ্চলটির সংকট নিরসনে স্পেনের প্রধানমন্ত্রী মারিয়ানো রেজয়ের সাথে বেলজিয়ামের রাজধানী ব্রাসেলসে আলোচনার প্রস্তাব জানিয়েছিলেন পুজদেমন। যদিও তার এই প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেন রেজয়।

বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত এই নির্বাচনে স্বাধীনতাকামী দলগুলো মোট ১৩৫টি আসনের মধ্যে ৭০টিতে জয় পেয়েছে। যদিও এর আগে গণভোটে কাতালোনিয়ার পক্ষে ভোট আরো বেশি পড়েছিল।

স্পেনের উত্তর-পূর্ব দিকে অবস্থিত সমৃদ্ধ অঞ্চল কাতালোনিয়ায় গত ১ অক্টোবর এ গণভোটে আয়োজন করা হয়। গণভোটে ৯০ শতাংশ ভোট কাতালোনিয়ার স্বাধীনতার পক্ষে থাকলেও স্পেনের পক্ষ থেকে তা মেনে নেয়া হয়নি। পরবর্তীতে গত ২৭ অক্টোবর কাতালোনিয়া স্বাধীনতা ঘোষণা করায় অঞ্চলটির স্বায়ত্তশাসন কেড়ে নিয়ে কেন্দ্রের অধীনে নিয়ে আসে স্পেন সরকার। এসময় স্বাধীনতাকামী নেতাদের বহিষ্কার করা হয় এবং আরেকটি নির্বাচনের আহবান করে স্পেন। রয়টার্স

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত