প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বর্ণবাদী অলঙ্কার পরে ক্ষমা চাইলেন ব্রিটিশ রাজকন্যা মিশেল

মরিয়ম চম্পা : বর্ণবাদী অলঙ্কার পরে ক্ষমা চাইলেন ব্রিটিশ রাজকন্যা মিশেল। মিশেল বলেন, আমি এই লোগোসূচক ব্রোচ পরার জন্য খুবই দু:খিত। কাউন্টি শহরের প্রিন্সেস মিশেল একটি নিগ্রোর ছবি মুদ্রিত ব্রোচ পড়েছিলেন, যার গায়ের রং কালো এবং দাশপ্রথাদের পোশাক পরিহিত। বাকিংহাম প্যালেসে রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথের বার্ষিক ক্রিসমাসের ভোজসভায় অংশ নেওয়ার সময় তার এই বিচিত্র ব্রোচ উপস্থিত সকলের মনে একধরনের বিতর্কের সৃষ্টি করে। কেউ কেউ বলছে ব্রিটিশ রাজ পরিবারের ভবিষ্যত নতুন অতিথী মেগান মার্কেলকে ছোট করার জন্য ব্রিটিশ এই রাজকুমারি ইচ্ছাকৃতভাবে এই ব্রোচ পরেছে। সে হয়তো রাজপরিবারের ভাবি সদস্য মেগানকে মেনে নিতে পারেনি।

এদিকে, সমালোচকদের বর্ণবাদী অভিযোগের পর প্রকাশ্যে ক্ষমা চাওয়ার পরও যেন গুজবের ডালপালা গজাচ্ছে।

বুধবার এই রয়েল রাজকন্যা রানী’র চাচাতো ভাইয়ের স্ত্রীর মর্যাদায় রাজপরিবারের ভোজসভায় অংশগ্রহণ করেন। এই আরোম্বরপূর্ণ অনুষ্ঠানে পিন্স হ্যারির বাগদত্তা মিশ্র জাতি বংশউদ্ভূত মেগান মার্কেলও উপস্থিত ছিলেন। রাজকুমারির মূখপাত্র জানান, এটা খুবই দু:খজনক ঘটনা এবং এটি একটি অপরাধের সমান। গত ১৭ এবং ১৮ শতাব্দীতে নিগ্রোদের শরীরের চিত্রাংকিত ছোট ভাস্কর্যটিতে আফ্রিগানদের প্রতি দাস সুলভ মনোভবের প্রকাশ পায়। রাজকুমারির ব্রোচ সোশ্যাল মিডিয়াগুলোতে বিতর্কের ঝড় নেমেছে। বিবিসি, দ্য গার্ডিয়ান

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত