প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

যুক্তরাষ্ট্রের হুমকির পরও জাতিসংঘে ফিলিস্তিন প্রস্তাবের কোস্পন্সর হলো মালদ্বীপ

মাছুম বিল্লাহ : জেরুসালেমকে ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদে উত্থাপিত প্রস্তাবের কোস্পন্সর হয়েছে মালদ্বীপ।

জাতিসংঘের এই প্রস্তাবে বলা হয় শুধু মাত্র ফিলিস্তিন ও ইসরাইলের মধ্যে প্রত্যক্ষ আলোচনার মধ্য দিয়ে জেরুসালেমের মর্যাদা পরিবর্তিত হতে পারে। এই প্রস্তাব বৃহস্পতিবার (২১ ডিসেম্বর) সাধারণ পরিষদে উত্থাপিত হয়।

এই প্রস্তাবের পক্ষে কোন দেশ ভোট দিলে তাকে দেয়া আর্থিক সাহায্য বন্ধ করার হুমকি দেয় যুক্তরাষ্ট্র। বৃহস্পতিবার ভোটের আগে জাতিসংঘে নিযুক্ত মালদ্বীপের স্থায়ী প্রতিনিধি আলি নাসের মোহাম্মদ এক টুইটে জানান যে আরব রাষ্ট্রগুলোর আনা এই প্রস্তাবে মালদ্বীপ কোস্পন্সর হয়েছে।

অধিবেশনে পূর্ব জেরুসালেমকে ফিলিস্তিনের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি প্রদান বিষয়ে মালদ্বীপ একটি বিবৃতি দেবে বলেও রাষ্ট্রদূত জানান।

এই প্রস্তাবের পক্ষে ভোট না দিতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং জাতিসংঘে মার্কিন রাষ্ট্রদূত নিকি ক্যালি প্রকাশ্যে দেশগুলোকে সতর্ক করে দেন।

ওয়াশিংটনে মন্ত্রিসভার বৈঠকের পর ট্রাম্প বলেন, এসব দেশ আমাদের টাকা নিয়ে আমাদের বিরুদ্ধেই ভোট দেবে। তারা আমাদের কাছ থেকে শত শত মিলিয়ন, এমন কি শত শত বিলিয়ন ডলার নিয়ে আমাদের বিরুদ্ধে ভোট দিচ্ছে। এসময় হ্যালি তার পাশে বসা ছিলেন।

ট্রাম্প বলেন, ‘আমরা এসব ভোটের দিকে নজর রাখছি। আমাদের বিরুদ্ধে ভোট দিতে দিন।’

ট্রাম্পের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে ১৫ সদস্যের জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে আনা প্রস্তাবে যুক্তরাষ্ট্র ভেটো দেয়। ওই প্রস্তাবটি পাস হলে জেরুসালেমকে স্বীকৃতি প্রদান ও সেখানে মার্কিন দূতাবাস স্থানান্তরের ব্যাপারে ঘোষণা প্রত্যাহারে ট্রাম্প বাধ্য হতেন।

নিরাপত্তা পরিষদের প্রস্তাবটি আইনগতভাবে সবাই মানতে বাধ্য হলেও সাধারণ পরিষদের প্রস্তাব তা নয়। কিন্তু এর মধ্য দিয়ে বিশ্বমতের প্রতিফলন ঘটে।-সাউথ এশিয়ান মনিটর।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত