প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আর কোনোদিন যেন রাজাকারের সরকার ক্ষমতায় না আসে : ইনু

রফিক আহমেদ : জাসদ সভাপতি ও তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেছেন, বাংলাদেশে যেন আর কোনোদিন সামরিক সরকার, অস্বাভাবিক সরকার, রাজাকারের সরকার ক্ষমতায় না আসে তার জন্য গণতান্ত্রিক দেশপ্রেমিক রাজনৈতিক শক্তি-মহল-ব্যক্তিকে সতর্ক থাকতে হবে।

শুক্রবার রাজধানীর শহীদ কর্নেল তাহের মিলনায়তনে ছাত্র-শ্রমিক সংহতি দিবস উপলক্ষে শহীদ শাজাহান সিরাজের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, বিএনপি-জামায়াত ধর্মের নামে জনগণের মধ্যে ভাগাভাগি, রক্তারক্তি, খুনাখুনি, অশান্তির যে রাজনীতি করছে তা শুধু বর্জন না সমূলে উৎপাটন করতে হবে।
তিনি আরো বলেন, শ্রমিক শ্রেণীর অধিকার প্রতিষ্ঠার আন্দোলনে একজন ছাত্রের আত্মত্যাগ ইতিহাসের অনন্য ঘটনা। এ ঘটনার পরবর্তী বছর থেকে দেশের প্রগতিশীল রাজনৈতিক দল, ছাত্র ও শ্রমিক সংগঠনসমূহ ২২ ডিসেম্বর ছাত্র-শ্রমিক সংহতি দিবস হিসাবে পালন করে আসছে।

এর আগে তথ্যমন্ত্রীর নেতৃত্বে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জাসদ, জাতীয় যুব জোট, জাতীয় শ্রমিক জোট, জাতীয় নারী জোটের নেতৃবৃন্দ শহীদ শাজাহান সিরাজের প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন জাসদ সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতার এমপি, সহ-সভাপতি শফি উদ্দিন মোল্লা, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নাদের চৌধুরী, শওকত রায়হান, জাতীয় যুব জোটের সভাপতি রোকনুজ্জামান রোকন, জাতীয় শ্রমিক জোট-বাংলাদেশ-এর সহ-সভাপতি সাইফুজ্জামান বাদশা, শাজাহান সিরাজ স্মৃতি সংসদের সাধারণ সম্পাদক আইয়ুব আলী খান, জাতীয় নারী জোটের সৈয়দা শামীমা সুলতানা হ্যাপী, ঢাকা মহানগর পূর্ব জাসদের সধারণ সম্পাদক এ কে এম শাহ আলম ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণ জাসদের সভাপতি ইদ্রিস ব্যাপারী প্রমুখ।
উল্লেখ্য, ১৯৮৪ সালের ২২ ডিসেম্বর সকালে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় রেল স্টেশন চত্বরে শ্রমিক-কর্মচারী ঐক্য পরিষদ আহুত ৪৮ ঘন্টার শ্রমিক-ধর্মঘট এবং ১৫ দল, ৭ দল, ছাত্র সংগ্রাম পরিষদ সমর্থিত ৪৮ ঘন্টার হরতালে পিকেটিং করতে গিয়ে তৎকালীন বিডিআর বাহিনীর লক্ষ্যভেদী গুলিবর্ষনে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংগ্রাম পরিষদের নেতা ও জাসদ সমর্থিত ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক শাজাহান সিরাজ নিহত হন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত