প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বড়দিনের উৎসব বানচালে উগ্র হিন্দুত্ববাদী তৎপরতা

আবু সাইদ: বড়দিন ও ইংরেজি নববর্ষের উৎসব বানচাল করতে উঠেপড়ে লেগেছে ভারতের উত্তর প্রদেশের উগ্র হিন্দুত্ববাদী সংগঠন। প্রদেশের আলিগড়ের সব স্কুলে এই উৎসব উদযাপন না করতে রীতি মতো হুমকি চিঠি দিয়েছে ‘হিন্দু জাগরণ মঞ্চ’।

তাদের দাবি, বড়দিনের উৎসব পালন আসলে হিন্দু শিক্ষার্থীদের জোর করে ধর্মান্তকরণের একটি ধাপ মাত্র, ফলে তা বন্ধ রাখতে হবে।

চিঠিতে বলা হয়েছে, ২৫ ডিসেম্বর এবং ১ জানুয়ারির উৎসব উদযাপন বন্ধ রাখলেই শুধু হবে না, স্কুলকে দায়িত্ব নিতে হবে যাতে কোনও শিক্ষার্থী ওই দিনগুলোয় কোনও উপহার পর্যন্ত না নিয়ে আসে। এসব অমান্য করলে তার ফলাফলের দায়িত্ব নিতে হবে স্কুল কর্তৃপক্ষকেই, এমন হুমকিও দেওয়া হয়েছে সেই চিঠিতে।

‘হিন্দু জাগরণ মঞ্চ’-এর আলিগড় শাখার প্রেসিডেন্ট সোনু সবিতা বলেন, ‘স্কুল কর্তৃপক্ষগুলির কাছ থেকে চিঠির উত্তর পাওয়ার পরই পরবর্তী কর্মপন্থা স্থির করা হবে।’ আগরায় আবার, ওই গোষ্ঠীর সঙ্গে সুর মিলিয়েছে ‘বিশ্ব হিন্দু মহাসংঘ’ নামের আরও একটি সংগঠন। ওই গোষ্ঠীর তরফে জানানো হয়েছে, নতুন বছরের উৎসব পালনের সময় হোটেল-রেস্তরাঁগুলিতে ‘অশালীন আচরণ’ রুখতে জোরদার বিক্ষোভ-প্রতিবাদ করা হবে।

আলিগড়ের অনেক স্কুলই এই হুমকি চিঠি পাওয়ার পর অনেকেই আতঙ্কিত। উদ্বেগ প্রকাশ করে আলিগড়ের পাবলিক স্কুল ডেভেলপমেন্ট সোসাইটি-র প্রেসিডেন্ট প্রবীণ অগ্রবাল বলেন, ‘প্রতি বছর আমরা সব সম্প্রদায়ের উৎসব উদ্‌যাপন করি এবং এগুলো আমাদের ছাত্রছাত্রীদের দেশের দায়িত্বশীল নাগরিক হিসাবে গড়ে উঠতে সাহায্য করে।’

তবে এই ধরণের হুমকির কথা প্রকাশ্যে আসার পর, উত্তরপ্রদেশ পুলিশ প্রশাসন সব জেলাকে সতর্ক করেছে। সব জেলা পুলিশ সুপারকে পরিস্থিতি অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ পাঠিয়েছেন এডিজি (আইনশৃঙ্খলা) আনন্দ কুমার। উৎসবের সময় স্কুলগুলিকে যথাযথ নিরাপত্তা দেওয়া হবে বলেও আশ্বাস দেওয়া হয়েছে। উত্তর প্রদেশের রাজ্য সরকারের উপ-মুখমন্ত্রী দীনেশ শর্মা বলেন, ‘সমস্ত সম্প্রদায়ের প্রতি সম্মান বজায় রাখার জন্য স্পষ্ট নীতি রয়েছে রাজ্য সরকারের। কোনও ধর্মের উৎসব উদ্‌যাপনেই বাধা নেই।’ আনন্দবাজার।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত