প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

তালতলীর ব্রীজটি এখন মরণ ফাঁদ!

মোঃ জয়নুল আবেদীন,আমতলী : বরগুনার তালতলী উপজেলার পাঁচশবিঘা খালের উপর নির্মিত শানুর বাজার ব্রীজটি এখন মরণ ফাঁদে পরিণত হয়েছে। এতে চরম দূর্ভোগ পোহাচ্ছে ওই এলাকার ২০ হাজার মানুষ। যে কোন সময় ঘটে যেতে পারে বড় ধরনের দূর্ঘটনা।

জানা গেছে, উপজেলা স্থানীয় সরকার প্রকৌশল বিভাগ ২০১০ সালে পাঁচশবিঘা খালের উপর শানুর বাজার সংলগ্ন আয়রন ব্রীজ নির্মাণ করে। কাজ নিম্ন মানের হওয়ায় নির্মাণের চার বছরের মাথায় ব্রীজের পাটাতনের ঢালাই উঠে রড বের হয়ে গেছে। ব্রীজের লোহার ভীম ও রেলিং ভেঙ্গে খসে পড়ছে।

স্থানীয় লোকজন ব্রীজের উপরে কাঠের পাটাতন দিয়ে চলাচল করছে। এ ব্রীজ পার হয়ে ওই এলাকার বেহেলা, হরিণবাড়িয়া, গেন্ডামারা, পাঁচশবিঘা, নিউপাড়া, নাথকান্দা, ঝাড়াখালী, আলীরবন্দর ও শানুর বাজারের ২০ হাজার মানুষ চলাচল করে। এ ছাড়া বেহালা মাধ্যমিক বিদ্যালয়, বেহালা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, দক্ষিণ বেহেলা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, কড়াইবাড়িয়া দারুসুন্নাত দাখিল মাদ্রাসা ও গেন্ডামারা বালিকা দাখিল মাদ্রাসার শিক্ষার্থীদের ওই ব্রীজ পার হয়ে যেতে হয়। দীর্ঘদিন ব্রীজটি বেহাল অবস্থায় পড়ে আছে। ঝুঁকিপূর্ণ এ ব্রীজ দিয়ে মানুষ ও গাড়ী পারাপার হতে সমস্যা হচ্ছে।

ওই এলাকার মাসুম বিল্লাহ, মিজান ও খোকন হাওলাদার জানান, একটি ব্রীজের কারণে এ এলাকার ২০ হাজার মানুষের চরম দূর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। ব্রীজটি দ্রুত নির্মাণের দাবী জানাই।

শানুর বাজারের প্রতিষ্ঠাতা মোঃ শানু হাওলাদার জানান, একটি ব্রীজের কারণে হুমকির মূখে পড়েছে বাজারটি। গাড়ীতে বহন করে কৃষকরা ওই ব্রীজ পার হয়ে বাজারে কৃষি পণ্য নিয়ে আসতে সমস্যা হয়। ব্রীজটি দ্রুত নির্মাণ করে বাজারটি রক্ষা ও এলাকার ২০ হাজার মানুষের দূর্ভোগ লাঘবের দাবী জানাই।

তালতলী উপজেলা প্রকৌশলী এসএম তৈয়বুর রহমান জানান জনগুরুত্বপূর্ণ এ ব্রীজটি দীর্ঘদিন বেহাল অবস্থায় পড়ে আছে। এ ব্রীজটি আইআরআইডিপি প্রজেক্টের অধীনে প্রকল্প দেয়া হয়েছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত