প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে চলন্ত সিঁড়ি, সিদ্ধান্ত অযৌক্তিক বলছেন শিক্ষাবিদরা (ভিডিও)

ফারমিনা তাসলিম: মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে তৈরি হচ্ছে চলন্ত সিঁড়ি । যার জন্য খরচ করা হবে ১ হাজার ১১৬ কোটি টাকা। শিক্ষাবিদরা বলেছেন, এটি সরকারের বিলাসিতা ছাড়া আর কিছুই নয়। কারণ, যেখানে দেশের ৮০ ভাগ বিদ্যালয়ের ভবন ঝুঁকিপূর্ণ, সেখানে চলন্ত সিঁড়ি করা অযৌক্তিক।

যশোর মুসলিম একাডেমির জরাজীর্ণ ভবনে ক্লাস করে প্রায় আটশ শিক্ষার্থী। বর্ষাকালে ওই স্কুলের শ্রেণীকক্ষগুলোতে পানি পড়ে। কিছুদিন আগে পলেস্তারা খসে পড়ে কয়েকজন শিক্ষার্থী আহতও হয়েছে।

বিদ্যালয়ের এক শিক্ষক জানান, গত বৃষ্টিতে কয়েকটি কক্ষ চুঁয়ে চুঁয়ে পানি পড়েছে এবং তাৎক্ষণিকভাবে ছেলে-মেয়েদেরকে নিয়ে আমরা বারান্দায় ক্লাস করেছি।

সরকারি-বেসরকারি প্রায় ১৯ হাজার মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের বেশিরভাগই ভবন ঝুঁকিতে রয়েছে। আর এক হাজার মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ভবন পুরোপুরি ব্যবহারের অনুপোযোগী।

পরিদর্শন ও নিরীক্ষা অধিদপ্তরের যুগ্ম পরিচালক বিপুল চন্দ্র সরকার বলেন, অধিকাংশ বিদ্যালয়ে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে ব্যক্তিগত উদ্যেগে বা স্থানীয়ভাবে। বেসরকারি উদ্যেগে হওয়ার কারণে অনেক দুর্বল জায়গা রয়েছে।

এ পরিস্থিতিতে সাড়ে চার হাজার কোটি টাকার প্রকল্প নিচ্ছে সরকার। তা থেকেই চলন্ত সিঁড়ি করা হবে, এটাই চূড়ান্ত।

মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর এস এম ওয়াহিদুজ্জামান বলেন, আমরা কোনদিনই ভাবিনি স্কুলে স্ক্যালেটর দিতে পারব। এখন আমরা চিন্তা করতে পারি, স্ক্যালেটর দিতে পারব।

শিক্ষাবিদরা বলেছেন, চলন্ত সিঁড়ির চেয়ে শিক্ষক সংকট দূর করা এবং মান বাড়ানো বেশি জরুরি।

শিক্ষাবিদ অধ্যাপক সৈয়দ আনোয়ার হোসেন বলেন, শিক্ষাব্যবস্থা এখন হযবরল অবস্থায় আছে। কারণ তার পরিণাম কী হবে তা বিবেচনায় না করে নানাবিধ পরীক্ষা-নিরীক্ষা ও সংস্কার করা হচ্ছে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সবশেষ এক মান উন্নয়ন প্রতিবেদনেও মাধ্যমিক শিক্ষার মানের বিষয়ে হতাশার চিত্র উঠে আসে।

 

সূত্র – ইনডিপেনডেন্ট টিভি

https://www.youtube.com/watch?v=0VxIR9sg0xQ&feature=youtu.be

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত