প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বায়ুদূষণ রোধে কাশ্মিরে পাতা পোড়ানোয় নিষেধাজ্ঞা!

প্রিয়াংকা পান্ডে: যতদিন যাচ্ছে ভারতে বায়ুদূষণের মাত্রা তীব্রতর হচ্ছে এবং এর কারণ হিসেবে বিহার ও কাশ্মিরে ক্ষেত-পাতা পোড়ানো আগুনকে দায়ি করছে দিল্লি প্রশাসন। এই অবস্থা থেকে বেরিয়ে আসার জন্য পদক্ষেপ নিচ্ছে কাশ্মির।

গতমাসে কাশ্মির সরকার সেখানে চলমান গাছ-গাছালি ও পাতা জ্বালানো কর্মকান্ড বন্ধ করার ইচ্ছা প্রকাশ করেছিলো। চলতি মাসের শেষে এসে এই বিষয়ে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হলো।

কাশ্মির সরকার থেকে বলা হয়, ‘এই ধরনের কর্মকান্ড অধিবাসীদের স্বাস্থ্যের জন্য বিপজ্জনক এবং আগুন থেকে আশপাশের অঞ্চলের হিমবাহ গলে যায়।’

শীতপ্রধান কাশ্মিরের বেশির ভাগ গাছই পাতা ঝরা প্রকৃতির হয়। ফলে শীতের শুরুতেই ঝরা পাতায় ছেয়ে যায় পুরো কাশ্মির । পরবর্তীতে ওই কাঠ-পাতা পুড়িয়ে কয়লা অথবা সার হিসেবে মাটির সঙ্গে মিশিয়ে দেওয়া হয়। কিন্তু বর্তমান প্রাদেশিক পরিবেশ ও মিউনিসিপাল আইনে এ ধরণের আগুন লাগানো বিষয়টি আইনবিরোধী বলা হয়েছে।

এ বছর সরকার থেকে এই আইন আরো কঠোর করার জন্য নিষেধাজ্ঞা জারি করা হলো।

দেশটির হাসপাতাল রেকর্ড অনুযায়ি বায়ুদূষনের জন্য ২০১৫-২০১৭ সাল পর্যন্ত ১ লাখ ৮ হাজার মানুষ বক্ষব্যাধিতে চিকিৎসা নিচ্ছে। দিনে দিনে অবস্থা আরো খারাপ দিকে মোড় নিচ্ছে বলেও জানিয়েছে বিশেষজ্ঞরা। বায়ুদূষণে ভারতের বর্তমান অবস্থা নির্দেশ করে এই নিষেধাজ্ঞাকে আরো জোরদার করা হয়েছে। রয়টার্স

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত