প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

প্রশ্নফাঁসের জন্য শুধু শিক্ষকরা দায়ী নয় শিক্ষার্থীদের বাবা-মাও দায়ী

ড. মীজানুর রহমান : প্রশ্নফাঁসের জন্য শুধুমাত্র শিক্ষকরাই দায়ি বা শিক্ষকরা প্রশ্নফাঁস করছেন, শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ এমন ধরনের বক্তব্য দিয়েছেন বলে আমি মনে করি না। তিনি বলেছেন, প্রশ্নফাঁসের অন্যান্য যে উৎসগুলো আছে সেগুলো সুরক্ষিত করা হয়েছে। যেমন আগে বিজি প্রেস, বোর্ড ছাড়াও আরো অনেক জায়গা থেকে প্রশ্নফাঁস করা হত, এখন সেই উৎস গুলোতে পর্যাপ্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করার পরেও এখন প্রশ্নগুলো যে ফাঁস হচ্ছে এর সাথে শিক্ষকরা জড়িত। কারণ, এখন যেটা হচ্ছে তা আধুনিক পদ্ধতিতে হচ্ছে, একটা পর্যায়ে গিয়েতো প্রশ্নটা শিক্ষকদের হাতে দিতেই হবে। আধা ঘন্টা আগে পরিক্ষা কেন্দ্রে প্রশ্ন পাঠাতে হয় আবং ভাগ করে বিভিন্ন কেন্দ্রে প্রশ্ন পৌছাতে হয়। তখন শিক্ষকরা মোবাইল ফোন দিয়ে ছবি তুলে বাইরে পাঠিয়ে দেয়। এই কথাটা বলতে গিয়ে তিনি বলেছেন, প্রশ্নফাঁসের সাথে শিক্ষকরা জড়িত ।

আমার মনে হয় না প্রশ্নফাঁসের জন্য শিক্ষকরা দায়ি। বরং আমি মনে করি, প্রশ্নফাঁসের জন্য সবচেয়ে বেশি দায়ি অভিভাবকরা। ঘুষখোর, বাটপার মা-বাবাদের জন্য শিক্ষার্থীরা প্রশ্নের খোঁজে নামছে। ছোট বাচ্চারা কোথায় টাকা পায়? তারপর বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রশ্নের জন্য চার থেকে পাঁচ লক্ষ টাকা ছেলে-মেয়েরা কোথায় পায়? অসৎ টাকার মালিক ওই বাবা-মায়েরাই টাকার যোগান দেয়। তারা প্রশ্ন খুঁজে আনে। তাই সবার আগে ওই বাবা মায়েদের খুঁজে বের করে বিচারের মাধ্যমে কঠিন সাজা দেওয়া উচিৎ।

পরিচিতি : ভিসি, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়
মতামত গ্রহন : লিয়ন মীর
সম্পাদনা : মোহাম্মদ আবদুল অদুদ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত