প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ভারতীয় সিন্ডিকেট আর বন্যায় ফসলহানির কারণেই বাড়ছে পেঁয়াজের দাম

হ্যাপী আক্তার: মৌসুম শুরু হওয়ায় দাম কমার কথা পেঁয়াজের। তবে ঝাজালো পেঁয়াজের দাম বেড়েই চলছে। চট্টগ্রাম খাতুনগঞ্জের ব্যবসায়ীরা বলছেন, বন্যায় ফসল হারানো আর ভারতীয় সিন্ডিকেটের কারণেই পেঁয়াজের দাম দিন দিন বাড়ছে। তবে দেশীয় পেঁয়াজ বাজারে উঠলেই কমে আসবে দাম। সূত্র: চ্যানেল টুয়েন্টিফোর।

চট্টগ্রামের প্রধান পণ্য পাইকারি বাজার খাতুনগঞ্জে পেঁয়াজের দাম কেজি প্রতি ৬৫ থেকে ৭০ টাকা। গত কয়েক দিন ধরেই চলছে এই অস্থিরতা। পেঁয়াজ উৎপাদন শুরু হয় ডিসেম্বর থেকে। আর এই সময়েই পার্শ্ববর্তী দেশ ভারত থেকে পেঁয়াজ আমদানি হয়। যার কারণে বছরের যে কোনো মৌসুমের তুলনায় দেশীয় বাজরে দাম কম থাকে পেঁয়াজের। গেল বছরেও এই মৌসুমে পেঁয়াজের দাম ছিলো ২০ থেকে ২২ টাকা কেজি। অথচ এ বছর পেঁয়াজের বাজার মূল্য কয়েকগুণ বেশি।

খাতুনগঞ্জ ও কাপ্তাইয়ে প্রায় শতাধিক আড়তে পেঁয়াজের চাহিদা ৬০০ থেকে ৭০০ টন। তবে বর্তমানে প্রতিদিন তা কমে এসেছে ১৫০ থেকে ১৩০ টনে। তবে এই মৌসুমের শুরুতে পেঁয়াজের সরবরাহ কেন কম তার ব্যাখ্যা হিসেবে ব্যবসায়ীরা বলেন, ভারত যেভাবে দাম বাড়াচ্ছে তার প্রভাব বাংলাদেশেও পড়ছে। তার সাথে বন্যার কথাও বলেন ব্যবসায়ীরা।

ভিন্ন ভিন্ন কারণ বলা হলেও স্পষ্টভাবে বুঝা যাচ্ছে ভারতই নিয়ন্ত্রণ করছে পেঁয়াজের দাম। তাই এ থেকে উত্তরণে আমদানি নির্ভরতা কমাতে অভ্যন্তরীণভাবে উৎপাদন বাড়ানোর ওপরে জোর দিয়েছেন ব্যবসায়ীরা।

বাংলাদেশে বছরে পেঁয়াজের চাহিদা ২২ লাখ টন। যার ৭ ভাগ পূরণ করে দেশের উৎপাদিত পেঁয়াজ আর বাকিটা আমদানি নির্ভর।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত