প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

চলতি বছরেও কুষ্টিয়ায় গম বীজ বরাদ্দ বাতিল

ফারমিনা তাসলিম: কুষ্টিয়া শহরের তিন জেলায় ২০১৭ সালেও গমের বীজ বরাদ্দ বাতিল করা হয়েছে। বিপুল পরিমাণ জমিতে গম আবাদ করে ঠিক মত ফলন পান কৃষকরা। তাই এ বছরও গম চাষ করতে চান কৃষকরা। এদিকে এডিসি বীজ বাতিল করায় বেকায়দায় পড়েছেন চাষি ও ডিলাররা।
গত বছর ব্লাস্টের আক্রমণ না হওয়ায় মিলেছে ভাল ফলন, তাই এ বছরও গম আবাদের প্রস্তুতি নিচ্ছেন কুষ্টিয়া শহরতলীর বারাদি এলাকার চাষিরা। কিন্তু ব্লাস্টের অজুহাতে কুষ্টিয়াসহ তিন জেলায় গম বীজ বরাদ্দ দিয়েও তা বাতিল করে দেয়া হয়েছে। প্রতিদিন শত শত কৃষক বীজ কিনতে এসে ফিরে যাচ্ছেন। অনেকে নিম্মমানের বীজ কিনতে বাধ্য হচ্ছেন।
এ প্রসঙ্গে স্থানীয় কৃষকরা জানিয়েছেন, এখন ধান কাটা চলছে। ধান কাটা শেষ হলে গমের চাষাবাদ করবে কৃষকরা। গমের বীজ কিন্তু দোকানে কিনতে পাওয়া যাচ্ছে না।

গম বীজ বরাদ্দ না দেয়ায় ক্ষতির মুখে পড়েছেন ডিলাররাও। মাঠ পর্যায়ের কৃষি কর্মকর্তারা বলেন, আশঙ্কা থাকার পরও ২০১৫ সালের চেয়ে ২০১৬ সালে এ অঞ্চলে গমের ফলন বেশি ছিল। তবে তিন জেলার জন্য ৪শ টন বীজের বরাদ্দ বাতিল হওয়ায় কোনো সিদ্ধান্ত নিতে পারছেন না তারা।
কুষ্টিয়া অঞ্চল বীজ বিপননের উপ-পরিচালক এ কে এম কামরুজ্জামান জানান, চাষিদের জন্য একটা পরামর্শ রয়েছে। সেটা হলো যেখানে একবার গম চাষ করা হয়েছে সেখানে তিন বছর পরে গম চাষ করা উচিত। তাহলে গমের ফলন বেশি হবে।

যারা গম আবাদ করতে চান তাদের একটু দেরিতে বীজ রোপনসহ বেশ কিছু পরামর্শ দিলেন বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট কুষ্টিয়া অঞ্চলের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জামান আল মাহমুদ।

সূত্র: ডিবিসি নিউজ

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত