প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আন্তর্জাতিক আদালতে আবার অন্যতম বিচারপতি পদে দলবীর ভান্ডারী

আশিস গুপ্ত, নয়াদিল্লি: বিচারপতি হিসাবে আন্তর্জাতিক আদালতে আবার  নির্বাচনে জিতলেন ভারতের দলবীর ভাণ্ডারী। পরিস্থিতি সুবিধার নয় দেখে, ভোট গণনার ১১ রাউন্ড শেষে ব্রিটেন তাদের প্রার্থী ক্রিস্টোফার গ্রিনউডের নাম প্রত্যাহার করে নেয়। প্রতিদ্বন্দ্বী রিং-এর বাইরে চলে যাওয়ায় দলবীরের জয় সহজে আসে।

টুইট করে দলবীরকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ। আন্তর্জাতিক আদালত সব মিলিয়ে ১৫ জন বিচারপতি নিয়ে গঠিত। তাঁদের প্রত্যেকের মেয়াদ ৯ বছর। প্রতি তিন বছর অন্তর তার এক তৃতীয়াংশ অর্থাৎ ৫ জন বিচারপতি নতুন করে নিয়োগ হয়। সেই পাঁচ জনের মধ্যেই এ বার ছিলেন দলবীর এবং ক্রিস্টোফার। পঞ্চম বিচারপতি পদের জন্য তাঁরা লড়ছিলেন।

১১ রাউন্ড পর্যন্ত দলবীর রাষ্ট্রসঙ্ঘের জেনারেল অ্যাসেম্বলিতে এবং ক্রিস্টোফার নিরাপত্তা পরিষদে এগিয়ে ছিলেন। এক জন প্রার্থীকে জিততে হলে, এই দুই সভাতেই সংখ্যা গরিষ্ঠতা প্রয়োজন। কিন্তু, শেষে পরিস্থিতি বেগতিক ঠেকে বলে ব্রিটেন তাঁর প্রার্থীপদ প্রত্যাহার করে নেয়। এর পর নিরাপত্তা পরিষদের ১৫টি ভোটই দলবীরের ঝুলিতে এসে জমা হয়। পাশাপাশি তিনি জেনারেল অ্যাসেম্বলির ১৯৩টি ভোটের মধ্যে ১৮৩টি পেয়েছেন।

১৯৪৫ সালে তৈরি হওয়ার পর থেকে আন্তর্জাতিক আদালতে এই প্রথম ব্রিটেনের কোনও বিচারপতি থাকছেন না। রাষ্ট্রসঙ্ঘে ব্রিটেনের স্থায়ী প্রতিনিধি জানিয়েছেন, ১১ রাউন্ডের পর আর কোনও সম্ভাবনাই ছিল না ক্রিস্টোফারের। তাই নাম প্রত্যাহার করে নেওয়া ছাড়া আর কোনও উপায় ছিল না। না হলে, জেনারেল অ্যাসেম্বলি এবং নিরাপত্তা পরিষদের শুধু সময়ই নষ্ট হত। সেটা ব্রিটেন চায়নি বলেই জানিয়েছেন তিনি।

দলবীরের এই জয় প্রসঙ্গে রাষ্ট্রসঙ্ঘে ভারতের স্থায়ী প্রতিনিধি সইদ আকবরুদ্দিন মঙ্গলবার বলেন, ‘‘নতুন যে ভারত উঠে আসছে এই জয় আসলে তার। পাশাপাশি এটাও স্বীকৃতি পেল, ভারতের দাবি মানতে গোটা বিশ্বকে এখন জায়গা ছেড়ে দিতে হচ্ছে।’’

দলবীরের এই জয়ে খুশি ভারত। এ দিন বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ টুইট করেন, ‘পুনর্নির্বাচিত হওয়ার জন্য দলবীর ভাণ্ডারীকে শুভেচ্ছা। বিদেশ মন্ত্রক— টিমের প্রচুর চেষ্টার ফসল এটা। সইদ আকবরুদ্দিনের কথা বিশেষ ভাবে উল্লেখ করতেই হয়।’

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী আবার সুষমা এবং তাঁর গোটা টিমকে এই জয়ের জন্য শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। পাশাপাশি, তিনি নিরাপত্তা পরিষদ এবং জেনারেল অ্যাসেম্বলির সকল সদস্যকে এই সমর্থন এবং বিশ্বাসের জন্যও শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত