প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

রংপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচন
ইজিবাইক থাকা না থাকার ওপর ‍নির্ভর ৫০ হাজার ভোট

জান্নাতুল ফেরদৌসী: আগামী ২১ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে রংপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন। যার লক্ষে প্রার্থীরা ইতোমধ্যে গণসংযোগ শুরু করে ‍দিয়েছেন। তবে এখানে নতুন এক সমস্যার সৃষ্টি হয়েছে ইজি বাইক চালকদের নিয়ে।যারা সংখ্যায় পঞ্চাশ হাজারেরও বেশি। এই ইজিবাইকের কারণে নগরীতে মাত্রাতিরিক্ত যানজটসহ বিভিন্ন রকমের সমস্যা সৃষ্টি হলেও রাস্তা থেকে এসব ইজিবাইক উঠিয়ে নেয়া সম্ভব হচ্ছে না। কারণ চালকরা বলছেন, ইজিবাইক উঠিয়ে নিলে তারা সামনের সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ভোট দিবেন না। সূত্র: যমুনা টিভি

জানা যায়, নগরীতে চলাচলের একমাত্র পরিবহন ইজিবাইক। নগরীর যানজট ও সৌন্দর্য নষ্টের বড় কারণ। প্রধান সড়ক থেকে অলিগলি সব জায়গায়ই চলার বাহন ইজিবাইক। কিছু রিক্সা থাকলেও চার্জার ইঞ্জিন দিয়ে করা হয়েছে অটো।

ইজিবাইক উঠিয়ে দেয়ার বিষয়ে চালকরা বলছেন, যদি কেউ ইজিবাইক উঠিয়ে দেয়ার কথা বলে তাহলে তাকে আমরা ভোট দিবো না। আর এর জন্য বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি হবে।যার ফলে যে মেয়র ইজিবাইক উঠিয়ে দেয়ার কথা বলেছিলেন তিনি এখন ইজিবাইক রাখার পক্ষে।

 

সাধারণ জনগণ বলছে, যেভাবে ইচ্ছে সেভাবেই লাইসেন্স দেয়ার কারণে বাইরের এলাকা থেকেও রংপুর নগরীতে ইজিবাইক বা অটোরিক্সা আসছে। এই কারণে নগরীতে যানজট শুরু হয়েছে।

এ ব্য‍াপারে রংপুর সিটি করপোরেশনের বর্তমান মেয়র ও আওয়ামী লীগের প্রার্থী সরফুদ্দীন আহমেদ ঝন্টু বলেন, জনগণের ভোগান্তি হয় বলে গত বছরের নভেম্বরে ইজিবাইক উঠিয়ে দেয়ার চেষ্টা করে ছিলাম কিন্তু পারিনি।সামনে সিটি নির্বাচন এখন যদি ইজিবাইক বন্ধ করে দেয়া হয়, এই ৫০ হাজার চালক বিভিন্নভাবে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করবে।

জাতীয় পার্টি মনোনীত প্রার্থী মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা বলেন, এদেরকে একটা সুযোগ-সুবিধার আওতায় নিয়ে আসা, আইনের আওতায় নিয়ে আসা। এটা জনপ্রতিনিধির জন্য এটা কঠিন কাজ।

বিএনপি’র মনোনয়ন প্রত্যাশী কাওসার জামন বাবলা বলেন, বিষয়টা চিন্তা করতে হবে।

সিটি করপোরেশন সূত্রে জানা যায়, রংপুর শহরে রেজিস্ট্রেশন করা ইজিবাইক আছে মাত্র ৫ হাজার। কিন্তু বাস্তবে এর সংখ্যা ৫০ হাজারেরও বেশি।

 

ইজিবাইক শহুরে জীবনকে কতটা আনইজি করতে পারে তার একটি বড় উদাহরণ রংপুর সিটি। এই শহরে একটি প্রবাদ প্রচলিত আছে যে, রাস্তায় মানুষের যত না মাথা তার চেয়ে বেশি ইজিবাইক। এই ইজিবাইক নিয়ন্ত্রণই রংপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনের বড় একটি ফ্যাক্টর।

সজিব খান/

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ