প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

রংপুরের টার্গেট ১৫৪

স্পোর্টস ডেস্ক: বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল) এবারের আসরে অন্যতম আকর্ষণ একই সঙ্গে ক্রিস গেইল ও ব্রেন্ডন ম্যাককালামের ওপেন করা। কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের বিপক্ষে শনিবারই প্রথম মাঠে নেমেছেন এই দুই ব্যাটিং দানব। তবে টি-টুয়েন্টি সেরা দুই তারকার দলকে বা খুব বেশি চ্যালেঞ্জিং লক্ষ্য দিতে পারেনি কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স।

মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে আগে ব্যাট করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৬ উইকেটে ১৫৩ রান করেছে তামিম ইকবালের কুমিল্লা। মাশরাফির রংপুরের জিততে চাই ১৫৪ রান।
আগে ব্যাট করতে নেমে মাশরাফির আগুনে বোলিংয়ে চাপে পড়ে কুমিল্লা। ব্যাক্তিগত ২১ রানে তামিম ইকবালকে ফিরিয়ে উইকেটে উৎসবের শুরু করেন রুবেল হোসেন। তামিমের ১৯ বলের ইনিংসে ছিল ৪টি চার। রুবেল হোসেনের করা চতুর্থ ওভারের প্রথম দুই বলেই দুটি চার হাঁকান তামিম। তবে সেই ওভারেই পঞ্চম বলে ম্যাককালামের হাতে ক্যাচ হন তামিম।

এরপর লিটন দাস ও জস বাটলারকে তুলে নেন মাশরাফি। তিন নম্বরে নেমে ইমরুল কায়েস লিটন দাসের সঙ্গে ভালো জুটির ইঙ্গিত দিচ্ছিলেন। কিন্তু লিটনকে ব্যাক্তিগত ১১ রানে বোল্ড করে ফিরিয়ে দেন মাশরাফি। ৮ রানের ব্যবধানে জস বাটলারকে এলবিডব্লিউয়ের ফাঁদে ফেলেন রংপুর অধিনায়ক মাশরাফি। বাটলার ১ রানের বেশি করতে পারেননি।

তবে তিন নম্বরে নামা ইমরুল কায়েস খেলেছেন দারুণ। সঙ্গে মারলন স্যামুয়েলস। এই দুজনের ব্যাটেই লড়াইয়ের পুঁজি পেয়েছে কুমিল্লা। ইমরুল ৩২ বলে ৪টি চার ও ২টি ছক্কায় করেছেন ৪৭ রান। স্যামুয়েলস করেছেন ৩৪ বলে ৪১ রান। তার ইনিংসে ছিল ৪টি চার ও ১টি ছক্কা।

এই দুজনই আউট হয়েছেন থিসেরা পেরেরার বলে। শেষ দিকে ১১ বলে ১ ছক্কা ও ১ চারে অপরাজিত ১৬ রান করেছেন মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন। হাসান আলি অপরাজিত ছিলেন ২ রানে।
রংপুরের হয়ে সর্বোচ্চ ২টি উইকেটে নিয়েছেন মাশরাফি ও পেরেরা। রুবেল পেয়েছেন ১ উইকেটে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ