প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ব্রিটিশ নাগরিকের মুক্তির সঙ্গে দেনা পরিশোধের সম্পর্ক নেই: ইরান

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ইরান পশ্চিমা গণমাধ্যমের এই খবরের সত্যতা অস্বীকার করেছে যে, একজন ব্রিটিশ নাগরিকের মুক্তির বিনিময়ে ব্রিটেন ইরানকে বিশাল অংকের দেনা পরিশোধ করবে। ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র বাহরাম কাসেমি বলেছেন, ব্রিটিশ সরকারের দেনা পরিশোধের সঙ্গে ওই ব্রিটিশ নাগরিকের মুক্তির কোনো সম্পর্ক নেই।

ইরানি বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ নারী সাংবাদিক নজানিন যাগারি ২০১৬ সালের ৩ এপ্রিল ইরান সফর করে ব্রিটেনে ফিরে যাওয়ার পথে তেহরান আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে গ্রেফতার হন। পরে ইরানের ইসলামি সরকার বিরোধী প্রচারণা চালানোর দায়ে তেহরানের একটি আদালত তাকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে।

ব্রিটিশ গণমাধ্যম দাবি করেছে, ‘থমসন রয়টার্স ফাউন্ডেশন’র হয়ে কাজ করছিলেন যাগারি।

ইরানের সাবেক স্বৈরাচারী শাহ সরকার ব্রিটেনের কাছে থেকে ‘চিফটেন’ ট্যাংক কেনার জন্য লন্ডনকে ওই অর্থ দিয়েছিল কিন্তু ১৯৭৯ সালে ইরানে ইসলামি বিপ্লব বিজয়ী হওয়ার পর ওই ট্যাংক সরবরাহ স্থগিত করে লন্ডন। কিন্তু এর পরিবর্তে প্রদেয় অর্থ আজও ফেরত দেয়নি ব্রিটিশ সরকার।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স ও ব্রিটিশ দৈনিক ডেইলি টেলিগ্রাফ দাবি করেছে, লন্ডনের কাছে তেহরানের যে ৪৫ কোটি পাউন্ড পাওনা রয়েছে তা ইরানকে দিয়ে দিলে নজানিন যাগারিকে মুক্তি দেয়া হবে বলে তারা জানতে পেরেছে।

এ সম্পর্কে বাহরাম কাসেমি বলেন, ইরানে আটক ব্রিটিশ নাগরিকের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা হয়েছে এবং আদালত প্রয়োজনীয় আইনি প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে তার বিরুদ্ধে রায় দিয়েছে। এটি বিচার বিভাগের বিষয় এবং এর সঙ্গে অন্য কোনো কিছুর সম্পর্ক নেই।

ব্রিটেনের কাছে ইরানের পাওনার বিষয়ে তেহরান এ পর্যন্ত বহুবার লন্ডনের সঙ্গে কথা বলেছে বলে জানান কাসেমি। তিনি বলেন, এই দু’টি ভিন্নধর্মী ও সম্পূর্ণ আলাদা বিষয়কে এক করে দেখানোর প্রচেষ্টা নিন্দনীয়।- পার্সটুডে ।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ