প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সিংগাইরে স্বামীর প্রতারণা ও নির্যাতনে স্ত্রীর আত্মহত্যা

মো. সিরাজুল ইসলাম, সিংগাইর (মানিকগঞ্জ) : উপজেলার জয়মন্টপ ইউনিয়নের চাপরাইল গ্রামে স্বামীর প্রতারণা ও নির্যাতনে অতিষ্ট হয়ে আজিমন (৩০) নামের এক গৃহবধূ বিষপানে আতœহত্যা করেছেন।

মামলা, মিমাংসা, গ্রেফতারসহ বিভিন্ন নাটকীয়তার কারণে গত ৩ দিনেও নিহতের লাশ দাফন হয়নি। এ ঘটনায় নিহতের স্বামী লিয়াকত হোসেন (৩৬) সহ ৩ জনকে আটক করেছেন থানা পুলিশ।

এলাকাবাসী জানান, ওই গ্রামের মৃত সুমন আলীর পুত্র লিয়াকত গত ৬-৭ মাস পূর্বে কিটিংচর-নয়াডাঙ্গি গ্রামের আরশাদ আলীর প্রবাস ফেরত মেয়ে আজিমনকে বিয়ে করেন। বিয়ের পর ২৯ শতাংশ জমি স্ত্রী আজিমনের নামে কেনার কথা বলে তার প্রবাসে উপার্জিত ১২ লাখ টাকা হাতিয়ে নেন লিয়াকত।

গত একমাস আগে ওই জমি নিজের নামে রেজিষ্ট্রি করেন সে। এ নিয়ে পারিবারিক দ্বন্দ চরম আকার ধারণ করে। মাঝে-মধ্যে স্ত্রীর উপর চালায় অমানুষিক নির্যাতন।

সর্বশেষ ৬ নভেম্বর স্থানীয় সালিশ বৈঠকে স্ত্রীর নামে ওই জমি ফেরত দেয়ার কথা হয়। লিয়াকত জমি ফেরত না দিয়ে নির্যাতনের মাত্রা বাড়িয়ে দেন। সহ্য করতে না পেরে গত বুধবার ( ১৫ নভেম্বর) দুপুরে আজিমন বিষপান করেন।

মুমূর্ষ অবস্থায় তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স-এ নিয়ে গেলে ডাক্তার তাকে ঢাকাস্থ শহীদ সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে প্রেরণ করেন। ওই হাসপাতালের কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন এবং ঢাকায় নিহতের ময়না তদন্ত সম্পন্ন হয়।

এ দিকে গত ৩ দিনে নিহতের লাশ দাফন না করে আতœহত্যার প্ররোচনাকে ধামাচাপা দেয়ার নাটকীয় মিংমাসার মধ্যস্থতা করেন কিটিংচর গ্রামের মৃত সকনের পুত্র জসিম উদ্দিন পাখি।

সে অনুযায়ী গত বৃহস্পতিবার নিহতের মা মকেলা বেগমের নামে ওই জমি ফেরত দেয়ার সকল আয়োজন সম্পন্ন করেন।

নিহতের বাবার বাড়িতে কমিশনে রেজিষ্ট্রি হওয়ার পূর্ব মুর্হুতে বিকেল ৩ টার দিকে সিংগাইর থানার এসআই জিয়া উদ্দিন উজ্জল অভিযান চালিয়ে দলিল লেখক রফিকুল ইসলাম (৩৮), নিহতের ভাতিজা রুবেল হোসেন (২৫) ও নিহতের স্বামী লিয়াকতকে আটক করেন।

স্থানীয়রা জানান, লিয়াকত ইতির্পূবে আরো দু’টি বিয়ে করেছিলেন। প্রথম স্ত্রী মধুরচর গ্রামের পারভীন তার অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে সংসার ত্যাগ করেন। দ্বিতীয় স্ত্রী সুদক্ষিরা গ্রামের মৌসুমী আক্তার অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে ৭ মাসের অন্তঃসত্বা অবস্থায় গলায় ফাঁসি দিয়ে আত্মহত্যা করেন।

এছাড়া তার বিরুদ্ধে একাধিক পরকীয়া প্রেমেরও অভিযোগ রয়েছে। সর্বশেষ আজিমন আত্মহত্যার ঘটনায় লিয়াকতের বিচার দাবিতে প্রতিবাদ মুখর হয়ে উঠেছে এলাকাবাসী।

শুক্রবার দুপুরে সরেজমিনে দেখা যায়, চাপরাইল গ্রামে লিয়াকতের প্রতিবেশি শহীদের বাড়ির উঠোনে লাশটি পরে আছে। অভিযুক্ত লিয়াকতের পরিবারের লোকজন গাঁ ঢাকা দিয়েছেন।

ওই গ্রামের যুবক সাঈম অভিযোগ করে বলেন, নাটকীয় মিমাংসা ও পুলিশের অভিযানসহ ঘটনাটি ধামা-চাপা দেয়ার নেপথ্যে কাজ করছেন জসিম উদ্দিন পাখি।

এ দিকে জসিম উদ্দিন পাখির ঘটনাটি মিমাংসার কথা স্বীকার করে বলেন, পুলিশি অভিযান সম্পূর্কে আমি কিছুই জানি না।

এ ব্যাপারে সিংগাইর থানার এসআই জিয়া উদ্দিন উজ্জল বলেন, জোরপূর্বক জমি লিখে নেয়ার চেষ্টার অভিযোগে দলিল লেখক ও নিহতের ভাতিজাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। লিয়াকতের বিরুদ্ধেও স্ত্রীকে আত্মহত্যা প্ররোচনার অভিযোগে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

তিনি আরো বলেন, ময়না তদন্ত সম্পন্ন হওয়ায় লাশ দাফনে কোন বাধা নেই।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ