প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ভোট আপনার পবিত্র আমানত, বিক্রি করবেন না : তারানা হালিম

জান্নাতুল ফেরদৌসী: ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম বলেছেন, অর্থের বিনিময়ে ভোট বিক্রি করবেন না। যে মানুষ টাকা দিয়ে ভোট কিনবে, সে আপনাদের সন্তানদের চাকুরি দেয়ার নামে সেই টাকা বহুগুণে আদায় করে নেবে, আপনার কাছ থেকে রাস্তা করার নামে সেই টাকা তুলে নেবে, স্কুল কলেজের বিপরীতে চাদা নেবে, বড় বড় ব্যবসায়ীদের কাছে থেকে ইলেকশন করার জন্য টাকা নিয়ে জিতলে পদে পদে ঐ ব্যবসায়ীদের টাকা উসুল করে দেবে। তাই ভোট বিক্রি করবেন না।

শুক্রবার সকালে এক ফেসবুক স্ট্যাটাসে তিনি এ কথা বলেন।

তারানা হালিমের ফেসবুক স্ট্যাটাসটি হুবহু তুলে ধরা হলো:

‘মাঝে মাঝে টাঙাইল যেতে যেতে দীর্ঘ পথে অনেক ভাবনা মাথায় আসে। লেখার ইচ্ছে হয়। এগুলো আমার মনের একান্ত ভাবনা। আমার বাবা আর মা উভয়ই শিক্ষিত, বনেদী পরিবারের। তারা কখনওই আমাদের অভাব রাখেননি -কিন্তু লড়তে শিখিয়েছেন। তাই আমরা যেমন বাসে, রিক্সায় স্বাচ্ছন্দ্যে চড়তে পারি, গাড়িতেও পারি। এসিতে থাকতে জানি- প্রচ- রোদে ঘন্টার পর ঘন্টা হাটতেও জানি।

আইন বিষয়ে পড়ার সময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ২য় বর্ষ থেকেই সরাসরি রাজনীতি করছি। জনতার মঞ্চ, মঈনুদ্দীন-ফখরুদ্দীন বিরোধী আন্দোলন, নেত্রীর মুক্তির জন্য আন্দোলনে উচু ট্রাকে উঠেছি, রোদে ঘর্মাক্ত কলেবর হয়েছি কিন্তু দমিনি কখনো। কষ্ট কখনো পরাস্ত করতে পারেনি-কারণ কষ্ট করতে শেখানো হয়েছিলো আমাদের। নীতি বাক্য শুধু আওড়াইনি আমরা বিবেকে ধারণ করেছি। তাই এবার দেলদুয়ার আর নাগরপুরে একটি ভিন্ন বার্তা ছড়িয়ে দিচ্ছি- বক্তৃতায়, গণসংযোগে। বার্তাটি হলো- অর্থের বিনিময়ে ভোট বিক্রি করবেন না। যে মানুষ টাকা দিয়ে ভোট কিনবে – সে আপনাদের সন্তানদের চাকরী দেবার নামে সেই টাকা বহুগুণে আদায় করে নেবে, আপনার কাছ থেকে রাস্তা করার নামে সেই টাকা তুলে নেবে, স্কুল কলেজের বিপরীতে চাদা নেবে, বড় বড় ব্যবসায়ীদের কাছে থেকে ইলেকশন করার জন্য টাকা নিয়ে জিতলে পদে পদে ঐ ব্যবসায়ীদের টাকা উসুল করে দেবে। তাই ভোট বিক্রি করবেন না। ভোট আপনার পবিত্র আমানত। এটি কোন বিক্রয়যোগ্য পণ্য নয়। জানি না আমার এমন প্রচারণায় “ভোট বিক্রি” বন্ধ হবে কি না। যদি হয়…… হতেও তো পারে। যারা ভালোবাসা আর আদর্শের জন্য রাজনীতি করে তাদের ভোট বিক্রি হয় না, হতে পারে না- এটাই বিশ্বাস করতে চাই।’

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ