প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে আলোচনায় যুক্তরাষ্ট্রের নতুন শর্ত

আনিস রহমান: উত্তর ও দক্ষিণ কোরিয়ার মধ্যে আলোচনার একটি সুযোগ হতে পারে, যখন পিয়ংইয়ং পারমাণবিক অস্ত্র পরীক্ষা বন্ধ করে দেয় এবং তার পরমাণু ও ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচির উন্নয়ন স্থগিত করে। পিয়ংইয়ংয়ের সঙ্গে ওয়াশিংটের সম্ভাব্য সংলাপের ব্যাপারে নতুন এই শর্ত দিয়েছেন মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী জেমস মেটিস।

তিনি বলেন, “যতদিন তারা পারমাণবিক অস্ত্র পরীক্ষা বন্ধ রাখবে, এর উন্নয়ন বিকাশ ও রপ্তানি বন্ধ রাখবে ততক্ষণ আলোচনা করার সুযোগ থাকবে”।

মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী এমন সময় উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে সম্ভাব্য সংলাপের জন্য নতুন শর্ত দিলেন যখন মার্কিন সেনাবাহিনীর প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের কমান্ডার অ্যাডমিরাল হ্যারি হ্যারিস বৃহস্পতিবার বলেছিলেন, ‘সামরিক সমর্থনপুষ্ট কূটনীতি’র মাধ্যমে উত্তর কোরিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র ও পরমাণু অস্ত্র নিয়ে সৃষ্ট সংকটের সমাধান করতে হবে। তিনি টোকিওতে জাপানের প্রতিরক্ষামন্ত্রী ইতসুনোরি ওনোদেরা’র সঙ্গে এক সাক্ষাতে এ মন্তব্য করেন।

কোরীয় উপদ্বীপে উত্তেজনা সৃষ্টির প্রধান হোতা আমেরিকা ও তার মিত্ররা উত্তর কোরিয়াকে পরমাণু অস্ত্র ও ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা স্থগিত রাখার আহ্বান জানিয়ে আসছে।

কিন্তু উত্তর কোরিয়া বলে এসেছে, দেশটির বিরুদ্ধে আমেরিকা ও তার মিত্রদের হুমকি বন্ধ না হলে এসব সমরাস্ত্রের পরীক্ষাও বন্ধ করবে না পিয়ংইয়ং। উত্তর কোরিয়া মনে করছে, মার্কিন হুমকির মোকাবিলায় আত্মরক্ষার একমাত্র উপায় হচ্ছে নিজের সামরিক সক্ষমতাকে শক্তিশালী করা। দেশটি আমেরিকায় আগাম হামলা চালানোরও হুমকি দিয়ে রেখেছে।

সূত্র:ট্রেন্ড নিউজ এজেন্সি

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ