প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

রোহিঙ্গা নির্যাতনের আরো বিশ্বাসযোগ্য প্রমাণ চান টিলারসন

লিহান লিমা : সম্প্রতি মিয়ানমার সফরে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেক্স টিলারসন দেশটির নেত্রী অং সান সু চি এবং সামরিক ও বেসামরিক কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক শেষে বলেছেন, মিয়ানমারের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপের সুপারিশের সময় এখনো আসে নি। এছাড়া তিনি রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গাদের ওপর আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর নৃশংসতার খবরগুলোর বিশ্বাসযোগ্য তদন্তের আহ্বান জানিয়েছেন।

মিয়ানমারে সেনা অভিযান ও নির্যাতনের মুখে সম্প্রতি প্রায় ৬ লাখ রোহিঙ্গা বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে, এর আগে আরো প্রায় সাড়ে তিন লাখের মতো রোহিঙ্গা বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছিল। সব মিলিয়ে প্রায় দশ লাখ রোহিঙ্গা এখন বাংলাদেশে রয়েছে। এই বিপুল পরিমাণ শরণার্থীর পাশ্ববর্তী দেশে আশ্রয় গ্রহণ করার পর টিলারসন এখনো রোহিঙ্গা ইস্যুতে তদন্তের অপেক্ষা করছেন।

টিলারসনের মিয়ানমার সফরের আগে যুক্তরাষ্ট্রের সিনেটররা মিয়ানমার ও দেশটির সেনাবাহিনীর উপর অর্থনৈতিক ও ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা আরোপের বিষয়ে ভাবছেন বলে রয়টার্সের খবরে জানা গিয়েছে। কিন্তু অং সান সু চির সঙ্গে বৈঠকের পর টিলারসন নিষেধাজ্ঞা আরোপের বিষয়ে ইতিবাচক মত দেননি। তিনি সঠিক, নিরপেক্ষ, বিশ্বাসযোগ্য তদন্তের ওপর জোর দিয়েছেন।

টিলারসন যখন রোহিঙ্গাদের ওপর নিষেধাজ্ঞা নিয়ে দ্বিধা-দ্বন্দ্বে ভুগছেন ঠিক তখনই ম্যানিলায় আসিয়ান সম্মেলনের রোহিঙ্গা সংকট সমাধান না হলে রাখাইনসহ পুরো অঞ্চলে চরমপন্থা শক্তিশালী হয়ে উঠতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্টনিও গুতেরেস। এর আগে জাতিসংঘ মহাসচিবের ‘সংঘাতে যৌন সহিংসতা’ বিষয়ক বিশেষ প্রতিনিধি প্রমিলা প্যাটেন বলেছেন, মিয়ানমারের সেনাবাহিনী রোহিঙ্গা নারীদের ব্যাপকহারে গণধর্ষণ করেছে। এমনও অভিযোগ রয়েছে রোহিঙ্গা নারীদের ক্যাম্পে আটকে রেখে উপর্যুপরী ধর্ষণ করেছে সেনারা।’

এক সপ্তাহ আগেই মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে ‘জাতিগত নিধনে’ বাংলাদেশে পালিয়ে আসা নারীরা সেনাবাহিনীর হাতে ব্যাপকহারে ধর্ষণ, গণধর্ষণের শিকার হয়েছেন বলে জানিয়েছে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা ‘হিউম্যান রাইটস ওয়াচ’। সম্পাদনা : পরাগ মাঝি

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত