প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মেয়র সাঈদ খোকনের বিরুদ্ধে মানহানির দুই মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক : ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র সাঈদ খোকনের বিরুদ্ধে মানহানির অভিযোগে দুটি মামলা করেছেনে একজন নারী। বৃহস্পতিবার হাজি মমতাজ ইসলাম নামের ওই নারী ঢাকার পৃথক দুটি আদালতে ফৌজদারি ও দেওয়ানি মামলাগুলো করেন।

বাদীর আইনজীবী এখলাস উদ্দিন ভূঁইয়া জানান, মানহানির অভিযোগে দ-বিধি আইনে ঢাকা সিএমএম আদালতে একটি এবং মানহানির জন্য পাঁচ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণের দাবিতে ঢাকার চতুর্থ সহকারী জজ আদালতে অপর দেওয়ানি মামলাটি করা হয়।

মামলার অভিযোগে বলা হয়, বাদী মমতাজ ইসলাম আনন্দবাজারে ৪ দশমিক ১৭ একর সম্পত্তির মালিক। ওই সম্পত্তি নিয়ে বাংলাদেশ রেলওয়ে ও ঢাকার তৎকালীন সিটি করপোরেশনের বিরুদ্ধে একটি মামলা করেন। ওই মামলায় রেলওয়ে ও সিটি করপোরেশনের বিরুদ্ধে ১৯৮৩ সালে আদালত অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা দেন, যা বর্তমানেও বলবৎ আছে।

গত ১২ নভেম্বর মেয়র সাঈদ খোকন একটি সমন্বয় সভায় বিভিন্ন প্রসঙ্গ নিয়ে আলোচনাকালে বলেন, আনন্দবাজার এলাকায় ফুলবাড়িয়া বাসস্ট্যান্ড স্থানান্তরের জন্য উচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। আনন্দবাজার রেলওয়ের জায়গায় অবস্থিত। ওই জায়গায় ফুলবাড়িয়া বাসস্ট্যান্ড স্থাপনের লক্ষ্যে শিগগির উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করা হবে।

মেয়রের ওই বক্তব্য পরদিন বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয়। যেহেতু উক্ত জায়গা নিয়ে মামলা চলমান এবং আদালতে অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা বলবৎ আছে, তাই মেয়রের এমন বক্তব্যে বাদিনীর মানহানি হয়েছে।

এখলাস উদ্দিন ভূঁইয়া বলেন, ক্ষতিপূরণের দেওয়ানি মামলা আদালত আমলে নিয়ে সমন জারি করেছেন। তবে ফৌজদারি মামলায় আদালত এখনো কোনো আদেশ দেননি।

সর্বাধিক পঠিত