প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

শেখ হাসিনার অধীনে নয়, সহায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচনে যেতে চায় বিএনপি : কাদের

রফিক আহমেদ : সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, শেখ হাসিনার অধীনে বিএনপি নির্বাচনে যাবে না, তারা সহায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে চায় বলে বিভিন্ন সভায় বিএনপির নেতারা এ মন্তব্য করেছেন।

বুধবার বেলা ১০টায় বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ ইউনেস্কো কর্তৃক বিশ্ব প্রামাণ্য ঐতিহ্যের স্বীকৃতি লাভ করায় জাতীয় প্রেস ক্লাব আয়োজিত ভিআইপি লাউঞ্জে এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, আগামী জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে নির্বাচন কমিশনের অধীনে, এই নির্বাচন নিরপেক্ষ হবে। রুটিনের বাইরে শেখ হাসিনার সরকারের কোনো কাজ থাকবে না। সবাই নির্বাচন কমিশনের অধীনে চলে যাবে, তখন আইন প্রয়োগকারী সংস্থাও শেখ হাসিনার কথা শুনবে না। তবে, সেনাবাহিনী ও নিরাপত্তা বাহিনী আইন প্রয়োগকারী সংস্থা নয়।

মন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণ কোনো রাজনৈতিক দলের নয়, এটি বাঙালির সম্পদ, আমাদের জাতীয় সম্পদ। এ ভাষণই স্বাধীনতার মূলমন্ত্রে উজ্জীবিত করেছিল মুক্তিকামী জনতাকে। সেদিন এ ভাষণ নেতৃত্ব দিয়েছিল, কর্তৃত্ব করেছিল ও শানিত করেছিল চেতনা।

তিনি আরও বলেন, সাপ্তাহিক বিচিত্রায় একটি জাতি নামে কলামে লিখেছে ৭ মার্চের ঘোষণার পর স্বাধীনতার গ্রীন সিগনাল পেয়েছি স্বয়ং জিয়াউর রহমান বলেলেন। আজ তার দল ৭ মার্চের দিবসটি পালন করে না। জিয়াউর রহমানের আমলে দীর্ঘ সময় ধরে এদেশে এ ঐতিহাসিক ভাষণ প্রচার ছিল নিষিদ্ধ। রেডিও-টেলিভিশনে প্রচার হতো না। মাইকে বাজানোর অপরাধে অনেককেই নিগৃহীত হতে হয়েছে।

জাতীয় প্রেস ক্লাবের সভাপতি শফিকুর রহমানের সভাপতিত্বে সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন- বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিকেল বিশ্ব বিদ্যালয়ের প্রফেসর ডা. কামরুল হাসান খান, দৈনিক সমকাল সম্পাদক গোলাম সারওয়ার, বিশিষ্ট সাংবাদিক আকরাম হোসেন, আজিজুল ইসলাম ভূঁইয়া, স্বপন সাহা, শফিকুল কবির সাবু ও জাহিদুজ্জামান ফারুক প্রমুখ। সভা পরিচালনা করেন দৈনিক ভোরের কাগজ সম্পাদক শ্যামল দত্ত, স্বাগত বক্তব্য রাখেন জাতীয় প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ফরিদা ইয়াসমিন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ