প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

পর্তুগীজ মডেল ও রােনালদাের গোপন চ্যাট ফাঁস

স্পাের্টস ডেস্ক : রিয়াল মাদ্রিদ সুপারস্টার ক্রিম্চিয়ানো রোনালদোর জীবনে বান্ধবীদের আসা-যাওয়া নতুন কিছু নয়। এবার সিআর সেভেনকে নিয়ে বোমা ফাটালেন পর্তুগীজ টিভি তারকা নাতাশা রদ্রিগেজ। ২১ বছর বয়সী এই মডেল দাবি, বর্তমান ২৩তম বান্ধবী জর্জিনার সঙ্গে সম্পর্ক থাকা অবস্থায় তার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক ছিল রোনালদোর। কেবল শারীরিক সম্পর্ক করার জন্যই রোনালদো তাকে ব্যবহার করেছেন এবং পরে তাকে ভুলে গেছেন।

ব্রিটিশ ট্যাবলয়েড পত্রিকা ‘দ্য সান’ এর কাছে নাতাশা রদ্রিগেজ বলেছেন, ‘আমি জানতাম রোনালদোর বান্ধবী আছে। তবুও আমি তার বন্ধু হই। আস্তে আস্তে আমাদের ঘনিষ্ঠতা বাড়ে। সে আমার শরীর খুব পছন্দ করতো। আমার শরীরের বিভিন্ন অংশ দেখতে চাইত। আমি শুধু ছবি না, ভিডিও পাঠাতাম তাকে। একদিন সে বলে, আমি তোমায় একান্তে পেতে চাই। এরপর রোনালদো আমাকে তার ফ্লাটের ঠিকানা দেয়। যখন রোনালদোর ফ্লাটে যাচ্ছিলাম, আমি বিশ্বাসই করতে পারছিলাম না। আমার হৃৎস্পন্দন বেড়ে যাচ্ছিল।

যখন আমি তার ফ্লাটে গেলাম, রোনালদো আমাকে বলল নিজের ঘর মনে করতে। আমি আমার জুতো খুলে ফ্রিজ থেকে জুস বের করে তার সামনে গিয়ে বসলাম। এরপর তার সামনে নিজেকে উন্মুক্ত করে দিলাম। মোট দুই ঘণ্টা ছিলাম আমি তার সঙ্গে। এরপর তার ওয়ারড্রব দেখিয়ে বলে তোমার যা পছন্দ হয় নাও। আমি বেসবল ক্যাপ বেছে নিয়েছিলাম। কারণ আমি হ্যাট অনেক পছন্দ করি।

সে আমাকে ৩০০ ইউরো দিল যেন আমি ট্যাক্সিতে বাড়ি ফিরতে পারি। অসাধারণ একটা রাত ছিল। পরদিন আমি তাকে মেসেজ পাঠিয়েছিলাম যে রাতে অনেক উপভোগ করেছি। রোনালদো উত্তরে জানায়, সেও উপভোগ করেছে। আর রাতের কথা গোপন রাখতে বলে। এরপর আরও অনেকক্ষণ মেসেজ আদান-প্রদান হলেও যখনই টিভি রিয়েলিটি শোতে যাওয়ার কথা জানাই। সে দিনের পর থেকে রোনালদো আর আমার কথার উত্তর দেয়নি। একপর্যায়ে সে আমাকে ব্লক করে দেয়।’ সূত্র: দ্য সান, ডেইলি মেইল, মিরর।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত