প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ক্রমশ ধর্মচ্যূত হচ্ছেন রণবীর! কিন্তু কেন?

শ্রেয়সী ঘোষ, কলকাতা: কিছুদিন আগেই চুল কেটে আলাউদ্দিন খলজি থেকে রণবীর সিং-এ ফিরেছিলেন ‘পদ্মাবতী’-র অভিনেতা। সেই ছবি সোশ্যাল সাইটে পোস্টও করেছিলেন মজা করেই।  ফের শুক্রবার সেই পুরনো লম্বা চুলের হেয়ারস্টাইলে আরও একটি সাদা-কালো ছবি পোস্ট করেছেন রণবীর। তার নিচে লেখা ক্যাপশান নিয়ে তোলপাড় সোশ্যাল মিডিয়া। দিনভর ট্রোল হলেন রণবীর।
কিন্তু কী সেই ক্যাপশান?
রণবীর ক্যাপশানে লিখেছেন ‘Losing my religion’। যেটা বাংলায় তর্জমা করলে দাঁড়ায় ‘ধর্মচ্যূত হচ্ছি’।
একে ‘পদ্মাবতী’ নিয়েই বিতর্কের শেষ নেই, তারই মধ্যে আরও একটি বিতর্ক উস্কে দিলেন আলাউদ্দিন খলজি।  যদিও এই ক্যাপশানে অভিনেতা আদৌ কী বলতে চেয়েছেন বা ছবিটার সঙ্গে তাঁর এই ক্যাপশানের কোনও যোগ আছে কিনা তাও বোঝা যায়নি। তবে সূত্রের খবর আলাউদ্দিন খলজির চরিত্রে অভিনয়ের জন্য টানা দু’বছর সেই চরিত্রের মধ্যেই নাকি ঢুকে পড়েছিলেন রণবীর। আর সেজন্য নাকি তিনি মনোবিদ্-এরও পরামর্শ নিয়েছেন।
সে যাই হোক, আপাতত রণবীরের এই  ‘ধর্মচ্যূত হচ্ছি’ ক্যাপশানকে নিজেদের মত করে ব্যাখ্যা করেছেন নেটিজেনরা। রণবীরের এই টুইটে ৯,৯০০ লাইক, ৬০০-রও বেশি রিটুইট হয়েছে।  কেউ ব্যাখ্যা দিয়েছে ‘Losing my religion’ আসলে আমেরিকান ব্যান্ড REM-এর জনপ্রিয় একটি গান। তবে ক্যাপশানকে নিয়ে সমালোচনাও হয়েছে বিস্তর। কেউ বলেছেন সিনেমার জন্য ইচ্ছে করে বিতর্ক তৈরির জন্যই এমনটা বলেছেন রণবীর। একজন কমেন্ট করেছেন, ”অসুবিধা নেই… এমনটা হয়…যেখানে এমন একটা সংস্কারী চরিত্রের মধ্যে দু’বছর ধরে ঢুকে রয়েছেন তাতে ধর্ম কেন, মনুষত্ব হারিয়ে ফেলাও অস্বাভাবিক নয়। ঘর ওয়াপাসি সব সময় সম্ভব…তবে মনোবিদ কী বলছেন?”
আনিস/

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ