প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

পাঁচজন বিদেশিতে ক্ষতির মুখে দেশীরা, মানছেন জয়াবর্ধনেও

নিজস্ব প্রতিবেদক: এবারের বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল) পাঁচজন করে বিদেশি খেলোয়াড় খেলার সুযোগ পেয়েছেন। যার ফলে কঠিন চ্যালেঞ্জেই পড়তে হয়েছে দেশীয় খেলোয়াড়দের। মূল একাদশে সুযোগ না পেয়ে সাইড বেঞ্চেই বসে সময় কাটাচ্ছেন দেশের অনেক প্রতিভাধর খেলোয়াড়ও। স্থানীয় ক্রিকেটারদের এই চ্যালেঞ্জটা মানছেন শ্রীলঙ্কান কিংবদন্তি মাহেলা জয়াবর্ধনেও। তবে বিষয়টি ইতিবাচক হিসেবেই দেখছেন খুলনা টাইটান্সের শ্রীলঙ্কান এ কোচ।
সিলেট পর্ব শেষে ঢাকা পর্ব খেলতে সব দলই এখন মিরপুর। শের-এ-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামের একাডেমী মাঠে শনিবার অনুশীলন করতে আসে খুলনা। অনুশীলন শুরুর আগে বিপিএলে পাঁচ বিদেশি খেলোয়াড় খেলানো প্রসঙ্গে জয়াবর্ধনে বলেন, ‘আমার মনে হয় কম্বিনেশনের কারণে এটা (পাঁচ বিদেশি খেলা) আপনার শক্তিকে বাড়িয়ে তোলে। নিজেদেকে প্রমাণ করার জন্য এটা স্থানীয় খেলোয়াড়দের খুব ভালো সুযোগ। শুধুমাত্র সেরা খেলোয়াড়রাই সুযোগ পাবে।’ তবে এতে স্থানীয় খেলোয়াড়দের ক্ষতি হচ্ছে কিনা প্রশ্নে জানান, ‘প্রতিটা জাতীয় দলের ১১ জন খেলোয়াড় দরকার, ৩০ জন নয়।’
বিপিএলের এটা পঞ্চম আসর হলেও এবারই প্রথম বেশ কিছু নামিদামি তারকা খেলোয়াড় যোগ দিয়েছে। ব্রেন্ডন ম্যাককালাম, জস বাটলার, রাইলি রুশো, কাইল অ্যাবটের মতো খেলোয়াড়রা খেলছেন এ আসরে। আর তাই মানসম্পন্ন বিদেশি খেলোয়াড় বাড়ায় টুর্নামেন্ট বেশ উপভোগ করছেন জয়াবর্ধনে, ‘কিছু বড় স্কোরের ম্যাচ এবং ক্লোজ কিছু ম্যাচ হয়েছে সিলেটে। আমার মনে হয় গত আসরের চেয়ে এবার বিদেশি খেলোয়াড়দের মান অনেক বেড়েছে। এটা সবসময়ই খুব কঠিন প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ হবে।’
জয়াবর্ধনের দল খুলনা এবার প্রথম ম্যাচে ঢাকা ডায়নামাইটসের কাছে অসহায় আত্মসমর্পণ করে। তবে পরের ম্যাচে দুর্দান্ত ছন্দে থাকা সিলেট সিক্সার্সকে মাটিতে নামিয়ে আনে দলটি। দুই ম্যাচে দুই রকম পারফর্ম করা দলকে নিয়ে অবশ্য এখনই মন্তব্য করতে রাজি নন জয়াবর্ধনে, ‘মাত্র তো প্রতি দলের দুইটি করে ম্যাচ শেষ হয়েছে। আরও সময় দিন।’

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ