প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আমতলীতে হত্যার ২৩ দিন পর মামলা দায়ের

মোঃ জয়নুল আবেদীন,আমতলী (বরগুনা): বরগুনার আমতলী উপজেলা উত্তর গাজীপুর বন্দরের শাহজাহান মুসুল্লী (৬৫) তার স্ত্রী আকলিমা বেগমকে (২৭) যৌতুকের জন্য পিটিয়ে হত্যার ২৩ দিন পরে আমতলী থানায় হত্যা মামলা হয়েছে। নিহত আকলিমার বাবা তাজেম আলী খান বাদী হয়ে গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে জামাতা শাহজাহান মুসুল্লিকে প্রধান করে পাঁচজনের নামে হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।
জানাগেছে, উপজেলা পশ্চিম সোনাখালী গ্রামের তাজেম আলী খানের কন্যা আকলিমাকে উত্তর গাজীপুর বন্দরের শাহজাহান মুসুল্লী ২০১০ সালে জোড়পূর্বক বিয়ে করে। বিয়ের পর থেকে আকলিমাকে যৌতুকের জন্য নির্যাতন করে আসছে। ওই সময় থেকে আকলিমাকে বাবার বাড়ী যেতে দেয়নি। এ নিয়ে স্থানীয়ভাবে বহুবার সালিশ বৈঠক হয়েছে। গত ১৭ অক্টোবর মঙ্গলবার দুপুরে আকলিমাকে বোন শেফালী বাবার বাড়ীতে নিতে আসে কিন্তু তাকে যেতে দেয়নি। তাকে বাবার বাড়ীতে নিতে আসায় ক্ষিপ্ত হয় স্বামী শাহজাহান মুসুলীø।
এক পর্যায় রেইন্টি গাছের লাঠি দিয়ে আকলিমাকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে। এতে আকলিমা জ্ঞান হারিয়ে ফেলে। পরে স্থানীয় চিকিৎসক মোঃ জসিম উদ্দিনকে ডেকে আনে। চিকিৎসক তাকে দেখে মৃত্যু ঘোষনা করেন। পরে ঘরের মধ্যে লাশ ফেলে রেখে শাহজাহান পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য বরগুনা মর্গে প্রেরন করে। পরে এ হত্যাকান্ডকে শাহজাহান মুসুল্লী ও তার আত্মীয়স্বজন আত্মহত্যা বলে প্রচার চালায়। তখন পুলিশ হত্যার অভিযোগে মামলা না নিয়ে অপমৃত্যু মামলা করেন।
গত ৮ নবেম্বর বুধবার ময়না তদন্তের প্রতিবেদন পুলিশের হাতে পৌছে। পরে পুলিশ নিহত আমলিমার বাবাকে ডেকে হত্যা মামলা করার পরামর্শ দেয়। ঘটনার ২৩ দিন পরে গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে বাবা তাজেম আলী খান বাদী হয়ে জামাতা শাহজাহান মুসুল্লীকে প্রধান আসামী করে ইউনুস মুসুল্লী, হাসান মুসুল্লি, তানিয়া ও খলিল মুসুল্লীর নামে আমতলী থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। সম্পাদনা: মোহাম্মদ আবদুল্লাহ মজুমদার

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ